নিজস্ব সংবাদদাতা, ব্যারাকপুরঃ- ২১ জুলাই রাতে বিরাটীতে তৃণমূল কর্মী শুভ্রজিৎ দত্ত খুনের ঘটনায় গ্রেফতার দিবাকর দাস। ধৃত ব্যক্তি বিরাটীর দুষ্কৃতী বাবুলালের শাগরেদ বলে জানা গিয়েছে। বিরাটী বণিক মোড়ে বিভিন্ন দোকানের সিসিটিভি ফুটেজ থেকে দিবাকর কে চিহ্নিত করে তাকে প্রথমে আটক করা হয় ও পরে তার কথায় অসঙ্গতি থাকায় গ্রেফতার করা হয়। শুক্রবার দুপুরে দিবাকর দত্ত কে ব্যারাকপুর মহকুমা আদালতে তোলা হলে বিচারক তাকে ১৪ দিনের পুলিশি হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেন।

তৃণমূল কর্মী খুনের অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত করে প্রকাশ্যে এসেছে বিস্ফোরক তথ্য।তদন্তকারীরা জানতে পেরেছেন, ঘটনার দিন দুপুরে ইমারতী দ্রব্যের ব্যবসায়ী বাবুলালের সঙ্গে বিবাদের জেরেই রাতে খুন হন তৃণমূল কর্মী শুভ্রজিৎ দত্ত। পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃত দিবাকর দাস হল খুনের ঘটনার মূল ষড়যন্ত্রকারী। তবে এই খুনের ঘটায় কোনও সুপারি কিলার ছিল কিনা, তা জানতে ধৃতকে জিজ্ঞাসাবাদ করেতে তদন্তকারীরা আজ ব্যারাকপুর আদালতে তুলে পুলিশি হেফাজত চায়। ধৃতের বিরুদ্ধে ৩০২, ১২০বি, ৩৪ এবং অস্ত্র আইনে মামলা রুজু করা হয়।