সংবাদদাতা, বসিরহাটঃ- একের পর এক মানসিক ভারসাম্যহীনকে ঘরে ফিরিয়ে নজির গড়লো হিঙ্গলগঞ্জের বাজার কমিটি । জানা যায়, হিঙ্গলগঞ্জ থেকে একটি ভারসাম্যহীন লোককে বাড়ি ফেরালো হ্যাম রেডিও ও হিঙ্গলগঞ্জের বাজার কমিটি পক্ষ থেকে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ১৫ দিন ধরে একটি ব্যক্তি কে হিঙ্গলগঞ্জে ঘোরাফেরা করতে দেখতে পায় স্থানীয় বাসিন্দারা। সন্দেহবশত কয়েকজন স্থানীয় মানুষ নাম ও ঠিকানা জিজ্ঞাসা করা হলে গ্রামের নামটি বলতে পারলেও রাজ্য ও জেলার নাম কিছুতেই বলতে পারছিল না। স্থানীয় কিছু মানুষ হিঙ্গলগঞ্জ বাজারের ব্যবসায়ী সমিতির সম্পাদক সুশান্ত ঘোষের কাছে নিয়ে গেলে তাকে বসিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে জানা যায় ২৫ বছর বয়সী ভবঘুরের নাম উদয় কুমার। তিনি বিহারের গোয়া জেলার ধুপি গ্রামের বাসিন্দা।

এরপর সুশান্তবাবু হ্যাম রেডিও রাজ্য সম্পাদক অম্বরিশ নাগ বিশ্বাসের সাথে যোগাযোগ করেন। এবং ওই মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তির বাড়ির লোকেদের খুঁজে বের করে হ্যাম রেডিও সদস্যরা। বাড়ির লোকের সাথে কথা বলে জানা যায় গ্রামের কয়েকজন বন্ধুর সাথে ইউপির একটি চিনি কারখানায় কাজ করতে যায়।সেখানে কয়েক মাস কাজ করার পর সবাই যখন বাড়ি ফিরছিল তখন ও ট্রেন থেকে নামতে পারিনি। এরপর সে পথ ভুলে শিয়ালদা স্টেশনে প্রথমেই চলে আসে। এবং হাসনাবাদ লোকাল ধরে হাসনাবাদে স্টেশনে নেমে ১৭ কিলোমিটার পথ পায়ে হেঁটে হিঙ্গলগঞ্জে পৌঁছায়। বাড়িতে বাবা ও দুই দাদার সাথে কথা বলে জানা যায় বাড়ির সবার ছোট ছেলে । বিয়ের পর কাজের সন্ধানে সে বাইরে যায় এরপর এই ঘটনা ঘটে। বহু খোঁজাখুঁজি করেও তাকে আর পাওয়া যায়নি।

অবশেষে আজ হিঙ্গলগঞ্জ থেকে তার সন্ধানের ফোন আসে। সেইমতো বিহারের ধপি গ্রাম থেকে বাড়ির লোকজন এসে ওই ভবঘুরেকে আজ হিঙ্গলগঞ্জ থেকে বাড়িতে ফিরিয়ে নিয়ে যায়। এই বিষয়ে সুশান্ত বাবু বলেন এর আগেও বহু ভারসাম্যহীন ব্যক্তিরা পথ ভুলে হিঙ্গলগঞ্জ চলে এসেছে। আমাদের প্রচেষ্টায় তাদের ঘরে ফেরাতে পেরেছি।