সিএএ, এনআরসি বিরোধী কর্মসূচিতে প্রতিবাদী পথসভা নিউ বারাকপুরে

0
96

অলোক আচার্য, নিউবারাকপুর :- ‘ধর্ম আমার, ধর্ম তোমার। আমরা সবাই নাগরিক।’ এনআরসি সিএএ এনপিআর এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদী পথসভা আয়োজন করে নিউ বারাকপুর শহর তৃণমূল কংগ্রেস। শুক্রবার সন্ধ্যায় স্থানীয় স্টেশন সংলগ্ন রত্নদীপ মোড়ে এক বিরাট প্রতিবাদী পথসভায় বিভিন্ন ওয়ার্ডের তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের ভিড় উপচে পড়ে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশিত পথে জেলা জুড়ে চলছে এনআরসি সিএএ ও এনপিআর-এর বিরুদ্ধে প্রচার আন্দোলন। বৃহস্পতিবার হয় মানববন্ধন ও মৌন মিছিল কর্মসূচি।

প্রতিবাদী পথসভায় নিউ বারাকপুর শহর তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি তথা অলইন্ডিয়া নম:শূদ্র বিকাশ পরিষদের অন্যতম উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য সুখেন মজুমদার বলেন, কেন্দ্র সরকারের অসাংবিধানিক নাগরিক সংশোধনী আইন এনআরসি, সিএএ, এনপিআর আমরা মানছি না মানব না। বাংলার জননেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যে নির্দেশ দিয়েছেন সেই নির্দেশমতো আমরা তৃণমৃল কংগ্রেসের নেতা নেতৃত্বরা গোটা রাজ্য জুড়ে ছাএ যুব সম্প্রদায় থেকে শুরু করে তৃণমূলের কর্মী সমর্থকদের সাথে করে নিয়ে এনআরসি ও সিএএ এর বিরুদ্ধে আন্দোলন করে যাব। যতদিন না পর্ষন্ত এই আইন প্রত্যাহার না হবে ততদিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে আমাদের আন্দোলন জারি থাকবে। বনগাঁর জনসভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী কড়া নির্দেশ দিয়েছেন এনআরসি সিএএ এর বিরুদ্ধে প্রতিদিন নিয়ম করে কর্মসূচি পালন করতে হবে। তাই আমাদের নেত্রীর সেই নির্দেশমতো এক বিরাট প্রতিবাদী পথসভার আয়োজন করা হয়েছে বৃহস্পতিবার তৃণমৃলের কর্মী সমর্থকদের নিয়ে মৌন মিছিল ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছি স্থানীয় কৃষ্টি প্রেক্ষাগৃহের সামনে।

তিনি আরও বলেন, বাড়ি বাড়িতে গিয়ে সাধারণ মানুষের কাছে এনআরসি, সিএএ ও এনপিআর এর বিরুদ্ধে প্রচার অভিযান চলবে। সারাদেশে আতঙ্ক তৈরির চেষ্টা করছে বিজেপি সরকার। সেই চক্রান্তের বিরদ্ধে আন্দোলন চলবে। দেশজুড়ে চলা এই আন্দোলনই কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে ছুড়ে ফেলে দেবে। বিজেপি কে আক্রমণ করে বলেন কেন্দ্রে মোদি ক্ষমতায় এসেই প্রথমে নোটবন্দি করল। দেশে বেকারত্ব বেড়েছে ৩২শতাংশ। আজ মানুষের অধিকার থাকবে কি থাকবে না, এটাই বড় প্রশ্ন। যার জমি নেই, সে নাগরিক নয় আজ এসব কথা ওরা বলছে। আমি এদেশের নাগরিক কিনা তোমাকে প্রমাণ দিতে হবে? ভোট তো নাগরিকরাই দিয়েছে যাকেই দিক। গণতান্ত্রিক দেশে যারা ভোট দেয় তারাই তো নাগরিক। নাগরিকত্ব অধিকার কিছুতেই খর্ব হতে দিচ্ছিনা দেবো না। মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ মতো লড়াই আন্দোলন চলবে। সামনেই পুরসভার নির্বাচন। এলাকার উন্নয়নে জনপ্রতিনিধিরা যার যার ওয়ার্ডে এলাকার মানুষদের নিয়ে কাজ করুন।

পথসভায় উপস্হিত হয়ে বক্তব্য রাখেন নিউবারাকপুর পৌরসভার পুরপ্রধান তৃপ্তি মজুমদার, উপ পুরপ্রধান মিহির দে, জেলা তৃণমৃল কংগ্রেসের নেতা ঋষীকেশ রায়,পুরসভার পুরদলনেতা প্রবীর সাহা, পুরপিতা সৌমিত্র মজুমদার,পুরমাতা নির্মিকা বাগচী, তৃণমৃল যুব কংগ্রেসের সভাপতি সুমন দে প্রমুখ। বিভিন্ন ওয়ার্ডের তৃনমূল কর্মী সমর্থকেরা ঐক্যবদ্ধ ভাবে প্রতিবাদী পথসভায় মিছিল করে জমায়েত হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

five × 3 =