বাইজিদ মন্ডল, ডায়মন্ড হারবারঃ- মানুষ মানুষের জন্য, প্রচলিত এই কথার ভিত্তিতে সময়ে অসময়ে মানুষই মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। মানবতা দিয়েই পৃথিবী গড়তে চায় অনেক মানুষ, সেই মূলমন্ত্র কে সামনে রেখে আজ এক অসুস্থ অপরিচিত মানসিক ভারসাম্যহীন মহিলার পাশে দাঁড়ালেন ডায়মন্ড হারবার এর স্থানীয় বাসিন্দারা। জানা যায়, ডায়মন্ড হারবার জেলা হাসপাতালে অপরিচিত মানসিক ভারসাম্যহীন আনুমানিক ৪৮ বছর বয়সী নার্গিস গাজী নামে এক মহিলাকে ১৪ সেপ্টেম্বর স্থানীয় বাসিন্দারা ভর্তি করান। বাড়ির লোক কাছে না থাকার কারনে সকল প্রকার চিকিৎসার জন্য সামনে এগিয়ে আসেন ডায়মন্ড হারবার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ডেপুটি সুপারিনটেনডেন্ট সুপ্রিম সাহা।

তিনি বলেন, একজন অপরিচিত মানসিক ভারসাম্যহীন মহিলা ডায়মন্ড হারবার সরকারি হাসপাতালে ভর্তি হয় স্থানীয় বাসিন্দাদের দ্বারায়।থানার মৌখিক বক্তব্য দিয়েছেন এবং আমরা তার ভিত্তিতে ভিডিও রেকর্ড করেছি। ১৪ তারিখ রাতে ভিডিও রেকর্ডটি পাঠানো হয়েছে হ্যাম রেডিওর (HAM redio) রাজ্য সম্পাদকের কাছে।

অম্বরিশ নাগ বিশ্বাস এনার পরিবারকে খুঁজতে সাহায্য করেছে। পরিবার সূত্রে জানা যায়, মহিলাটির নাম নার্গিস গাজী যার বয়স ৪৮ বছর প্রায় ২১ দিন নিখোঁজ হয়ে গিয়েছিলেন, স্থানীয় থানায় নিখোঁজের অভিযোগ করা হয়। মহিলার স্বামীর নাম আরশেদ আলী গাজী। উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বসিরহাট থানার অন্তর্গত ত্রিমোহিনী এলাকার বাসিন্দা। বুধবার বিকেল বেলায় তার বাড়ির লোক আসে পুলিশের সামনে থেকে তাকে তার পরিবারের কাছে তুলে দেওয়া হয়। এই ভারসাম্যহীন মহিলাকে ফিরে পেয়ে রুগীর পরিবারের পক্ষ থেকে একটা খুশির জোয়ার, তার সঙ্গে হাসপাতালের ডেপুটি সুপারিনটেনডেন্ট সুপ্রিম সাহা কে, পুলিশ প্রশাসন ও স্থানীয় বাসিন্দারা ভর্তি করান তাদের কেও অভিনন্দন জানায় পরিবারের তরফ থেকে।