সংবাদদাতা, বসিরহাটঃ- বেশ কয়েকদিন ধরেই হিঙ্গলগঞ্জ বাজার সেট ঘর, হসপিটাল মোড়, কখনো বা হাসপাতালের বারান্দায় শুয়ে বা বসে থাকতে দেখা যেত এক ভবঘুরেকে। আবার কখনো খাওয়া জুটেছে কখনো বা না খেয়ে চুপ করে বসে থাকতো এই সমস্ত জায়গায়। দীর্ঘদিন ধরেই স্থানীয় বাসিন্দাদের পক্ষ থেকে ভবঘুরের সাথে কথা বলার চেষ্টা চালাচ্ছিল। কিন্তু হিন্দিভাষী হওয়ায় স্থানীয় বাসিন্দাদের পক্ষে তা বোঝা অসম্ভব ছিল।

অবশেষে স্থানীয় এক যুবক ওই ভবঘুরের সাথে হিন্দি ভাষায় কথা বলেন । নাম এবং বাড়ির ঠিকানা জানতে চাওয়া হয় তখনই তার নাম জানা যায় কৃষ্ণা লাল রাম। বয়স পঞ্চান্ন বছর, ছত্রিশগড়ের যসা পুর গ্রামে বাড়ি। বাড়ির লোকের সাথে কথা বলে জানা যায় লকডাউনের সময় দীর্ঘদিন কাজ হারিয়ে বাড়িতে অবসাদে ভুগছিলেন। একদিন হঠাৎ ব্যাগের ভিতর বেশ কিছু কাগজপত্র নিয়ে সে বাড়ি থেকে বেরিয়ে পড়ে। বাড়ির লোকেরা ভেবে ছিল সে হয়তো কোন কাজের সন্ধানে গেছে। এরপর দীর্ঘদিন বাড়িতে না আসায় স্থানীয় প্রশাসনের কাছে লিখিতভাবে নিখোঁজের অভিযোগ জানানো হয়।

অবশেষে হিঙ্গলগঞ্জের বাসিন্দাদের সহযোগিতায় ও হ্যাম রেডিও মাধ্যমে ভবঘুরে বাড়িতে ফিরতে পারলো।

এই বিষয়ে হ্যাম রেডিও রাজ্য সম্পাদক অম্বরিশ নাথ বিশ্বাস জানান, ভবঘুরেকে তার নিজের বাড়িতে ফিরিয়ে দিতে পেরে আমি এবং হিঙ্গলগঞ্জ বাসি ভীষণ খুশি।