সংবাদদাতা, বসিরহাটঃ- করোনা অাবহের পাশাপাশি সাইক্লোন ইয়াসের দাপটে বিধ্বস্ত হিঙ্গলগঞ্জের মামুদপুর, রূপমারি বিস্তৃর্ণ এলাকা। সেখানকার দুর্গত অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ালেন কয়েকজন অবসরপ্রাপ্ত সৈনিক। এতদিন দেশের জন্য সামনে থেকে লড়াই করেছেন এবার তাঁরাই সমাজের পিছিয়ে পড়া প্রান্তিক মানুষদের কাছে দাতা হয়ে উঠলেন। এদিন হিঙ্গলগঞ্জের রূপমারি বিস্তৃর্ণ ক্ষতিগ্রস্থ এলাকায় অসহায় মানুষদের পাত পেতে খেতে দিলেন নিজেদের উদ্যোগে সেই সাথে মেডিকেল ক্যাম্প ও বিনা পয়সায় স্বাস্থ্য পরীক্ষা ওষুধ দিয়ে এলাকার মানুষের পাশে দাঁড়ালেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, যে সমস্ত ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার আছে তাদের সাথে বেশ কিছুদিন ধরে যোগাযোগ করে যাচ্ছিল এই অবসরপ্রাপ্ত সৈনিকরা। শুধুই খাওয়া-দাওয়া তা নয় কোটালের জোয়ারের জেরে নদীর জল ঢুকে যাওয়ায়, নানান রকম জলবাহিত রোগ হতে পারে। সেই কথা মাথায় রেখে এই সমস্ত এলাকাবাসীদের জন্য স্বাস্থ্য শিবির এর মাধ্যমে শারীরিক পরীক্ষা বিনামূল্যে ওষুধ মেডিকেল ক্যাম্পের ব্যবস্থাও করেন এই অবসরপ্রাপ্ত সৈনিকেরা। এহেন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন রূপমারিবাসীরা।

গ্রামবাসী কঙ্কন মন্ডল জানান, আমাদেরকে সৈনিকরা নিজেদের হাতে খাবার পরিবেশন করে ৯০০ থেকে ১০০০ এত জনকে খাওয়াছেন। শারীরিক সমস্যার যদি কারো থাকে সেই বিষয় মাথায় রেখে মেডিকেল ক্যাম্পের ব্যবস্থায করেছেন।

এ বিষয়ে অবসরপ্রাপ্ত সৈনিক বিকাশ গায়েন ও মধুসূদন গায়েন বলেন, জীবনের অনেকটা সময় দেশের জন্য কাজ করেছি, জন্মগ্রহণ করেছিলাম গ্রামে। তাই গ্রামের মানুষের কথা ভুলতে পারিনা। শহরে থাকি ঠিকই কিন্তু বছরের বেশিরভাগ সময় গ্রামগঞ্জে সবাই কে সঙ্গে নিয়ে মানুষের পাশে স্বাস্থ্য শিবির থেকে ত্রাণ সামগ্রী তুলে দেওয়া একাধিক জনসেবামূলক কাজ করে থাকি নিজেদের উদ্যোগে।