নিজস্ব প্রতিনিধি :- শ্বশুর বাড়ির লোকেদের অত্যাচার সহ্য করতে না পারায় আত্মহত্যার পথ বাঁচলো এক গৃহবধূ। মৃতার নাম কনিকা ঘোষ (২২)। ঘটনাটি ঘটেছে হালিশহর স্টেশন রোড এলাকায়। মৃতার বাপের বাড়ির তরফ থেকে শ্বশুর বাড়ির বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে আজ তারা বীজপুর লিখিত অভিযোগ করে। পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, তিন বছর আগে হালিশহর স্টেশন রোডের বাসিন্দা সুজন ঘোষ (ফোকরে) এর সাথে বিয়ে হয়েছিল কনিকা ঘোষের। বিয়ের পর থেকে চলত শ্বশুরবাড়ির অত্যাচার চালাতো বলে মেয়ের বাড়ির লোকজনের অভিযোগ। অভিযোগ, মৃতার বাপের বাড়ি লোকজন পাড়া-প্রতিবেশীদের জানতে পারে তাদের মেয়ের শরীর খারাপ। খবর পেয়ে তারকেশ্বর থেকে তড়িঘড়ি পরিবারের লোকজন এসে জানতে পারে তাদের মেয়ে কল্যাণী জেএনএম হাসপাতলে রয়েছে। সেখানে গিয়ে তাদের মেয়েকে মৃত অবস্থায় দেখতে পায়। এরপরই বাপের বাড়ির লোকজনের মেয়ের আত্মঘাতীর জন্য শ্বশুর বাড়ির বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলে। আজ বীজপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের হলে, অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমেছে পুলিশ। তবে ঘটনার পর থেকে পলাতক অভিযুক্ত দুই জন।