সুমন পাত্র, ঝাড়গ্রামঃ- হাতির হামলায় প্রায় প্রতিদিনই আহত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ছে ঝাড়গ্রাম জেলায়। ঝাড়গ্রাম ব্লকের গড় সালবনি, নেদাবহড়া, সাপধরা ,আগুইবনি, মানিকপাড়া এলাকায় দাঁপিয়ে বেড়াচ্ছে দাঁতাল হাতি দল। এই হাতির দল গুলিকে বাগে আনতে ব্যাপক সমস্যায় পড়তে হচ্ছে বনদপ্তর কে। তারই মাঝে এবার বনদপ্তর এর পক্ষ থেকে গ্রামবাসীদের সচেতন করা এবং হাতি দেখতে পেলে যাতে তৎক্ষণাৎ বনদপ্তর কর্মীদের এবং রেঞ্জ অফিসের খবর দেওয়া হয়। সে কারণে সচেতনতামূলক প্রচার কর্মসূচি চালানো হচ্ছে জেলাজুড়ে।

ইতিমধ্যে হাতির যেখানে দল রয়েছে সেই দল হাতির ওপর নজরদারি চালাচ্ছে বনদপ্তর কিন্তু ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা দলছুট দালালদের তান্ডব এই একের পর এক দুর্ঘটনা ঘটছে তা নিয়ে চিন্তিত বনদপ্তর ও জনগণের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে তারা যেমন একদিকে সচেতনতা শিবির করছে অন্যদিকে হাতির ওপর নজরদারি চালাচ্ছে হাতির দলগুলিকে অন্যত্র স্থানান্তরিত করার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। একসাথে এত হাতি এক জায়গায় চলে আসায় কিছুটা সমস্যার মধ্যেও করছে বনদপ্তর এর কর্মীরা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বনদপ্তরের এক আধিকারিক বলেন, মানুষ কে বোঝানো যায় হাতিকে তো বোঝানো যায় না। তো আমরা আমাদের সাধ্যমত চেষ্টা করছি।

স্থানীয় পুকুরিয়া এলাকার শিব শংকর দাস স্পষ্ট বলেন, বনদপ্তর নজরদারি চালাচ্ছে সচেতন করছে কিন্তু দলছুট দাঁতাল হাতি কখন কোন দিক থেকে গ্রামের মধ্যে খাদ্যের জন্য ঢুকে পরছে কেউই বুঝতে পারছিনা আর তখনই দুর্ঘটনা ঘটছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

sixteen − 12 =