নিজস্ব সংবাদদাতাঃ- হাওড়ার বাগনানের কালিকাপুরে তিনটি পূর্ণ বয়স্ক বাঘরোলের মৃতদেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়ালো। সাধারণত হাওড়া বিভিন্ন এলাকায় বাঘরোলের দেখা মেলে। হাওড়া জেলার ডিভিশনাল ফরেস্ট অফিসার রাজু সরকার জানিয়েছেন, পুলিশকে এই বিপন্ন পশুর দেহ উদ্ধারের কথা জানানো হয়েছে। এফ আই আর করা হয়েছে। তিনি এও বলেছেন, ‘বাগনানের কালিকাপুর থেকে আমাদের বনকর্মীরা বাঘরোলের মৃতদেহগুলো উদ্ধার করেছে। কীভাবে বাঘরোলগুলোর মৃত্যু হল, তা ময়নাতদনতের পরই জানা যাবে।

বাগনান ১ ব্লকের বন ও ভূমি কর্মাধ্যক্ষ চন্দ্রনাথ বসু বাঘরোল হত্যার ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, এই ঘটনার যথাযথ তদন্ত হওয়া দরকার। যারা কাজটি করেছে জঘন্য কাজ করেছে। উলুবেড়িয়ার রেঞ্জার রাজেশ মুখার্জি বলেন, তিনটে পূর্ণবয়স্ক মৃত বাগরোল উদ্ধার করা হয়েছে। এগুলি কবে মারা গেছে তা ময়নাতদন্তের পর জানা যাবে। হাওড়ার ডিভিশনাল ফরেস্ট অফিসারের মতে, বিপন্ন প্রজাতির বাঘরোল গুলোকে স্থানীয়রাই মেরে ফেলেছে বলে অনুমান করা হচ্ছে। পশু হত্যার অপরাধে অপরাধীদের শাস্তি হবে।

সাম্প্রতিক অতীতে মানুষের হাতে বেশ কয়েকটি বাঘরোলের প্রাণ হারানোর ঘটনা সামনে এসেছে৷ সূত্রের খবর, স্থানীয় বনকর্মী ও অফিসাররা, স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ও পরিবেশবিদদের যৌথ প্রচেষ্টায় খুব তাড়াতাড়ি বাঘরোল বাঁচানোর সচেতনতামূলক অনুষ্ঠান করবে বলে জানা গেছে।