সৌগত-চন্দ্রিমার হাত ধরে রাত্রিকালীন জরুরি পরিষেবার উদ্বোধন হল নিউব্যারাকপুর বি সি রায় হাসপাতালে

0
Advertisement

অলোক আচার্য, নিউ বারাকপুর :- শ্বাসকষ্ট হচ্ছে অক্সিজেন দিতে হবে অথবা আহত হয়েছেন চোট পেয়েছেন হাত পা কেটে গিয়েছে তাকে ইনজেকশন দিয়ে ব্যান্ডেজ করতে হবে আবার মহিলাদের প্রসবে যন্ত্রনা বেদনায় সাময়িক ইনজেকশন ওষুধ দিয়ে প্রাথমিক পরিষেবা দিয়ে সুস্থ করে তোলার জন্য চালু হল রাত্রিকালীন জরুরি চিকিৎসা পরিষেবা। নিউ বারাকপুর পুরসভা পরিচালিত ডা: বি সি রায় সাধারন হাসপাতাল ও মাতৃসদনে অত্যাধুনিক সুসজ্জিত রাত্রি কালিন জরুরি চিকিৎসা পরিষেবা আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন দমদমের সাংসদ অধ্যাপক সৌগত রায় ও রাজ্যের স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য।

সোমবার বিকেলে। মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য বলেন রোগ নির্নয় সবচেয়ে আগে। প্রাথমিক পরিষেবা দিতে হবে। শুধু ডাক্তার নার্স নয় সকলে মিলে এগিয়ে এসে ভালো কাজে রোগ নির্নয়ে সামিল হতে হবে। সব কিছু পয়সার নিরিখে মুক্তি করা যায়না। আধুনিকমানের প্যাথোলজি সমন্বিত রাত্রি কালিন জরুরি পরিষেবা খুব ভালো উদ্যোগ হাসপাতালে চালু হল। রাত্রি ৯টা থেকে পরদিন সকাল ৭টা পর্যন্ত। সব সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসার বিনামূল্যে হয়। রাজ্য সরকার হাসপাতাল গুলিতে সার্বিকভাবে আরও উন্নত করার চেষ্টা করে চলেছে। সারা ভারতবর্ষে অগ্রনী ভূমিকায় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। আমার সৌভাগ্য স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী হয়ে মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশিত পথে জেলা সরকারী হাসপাতালে পরিদর্শনে গিয়ে তদারকি করি। একটা ভালো ও আলোর দিক।

পরিকাঠামো ঠিক নেই বলাটা ঠিক নয়। খামতি থাকলে পূরণ করবেন। নেতিবাচক নয় ইতিবাচক চিন্তা করুন। স্বাস্থ্য কর্মীরা ২৪ ঘন্টা কাজ করেন তাদের কুর্নিশ জানাই। মেয়েরা নিজেদের স্বাস্থ্যের নজর রাখে না। বাংলাকে ভালো রাখুন। রোগের জন্য প্রাথমিক পরিষেবা। সাংসদ অধ্যাপক সৌগত রায় হাসপাতালের উন্নয়নে আর্থীক সহযোগিতার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। পরিকাঠামো উন্নয়নে প্রথমে ২০ লক্ষ দ্বিতীয় পর্যায়ে হাসপাতালে কালার ড্রপলার মেশিন কেনার জন্য ২২ লক্ষ দিয়েছি। স্বাস্থ্য দপ্তরের জনগনের হাসপাতাল নির্বাচিত প্রতিনিধিরা পরিচালনা করেন। চেষ্টা করব উন্নতিকরনে। ভালো পরিষেবা। জনগনের সম্পদকে ভালো করে রক্ষা করবেন। উপস্থিত ছিলেন নিউ বারাকপুর পুরসভার পুরপ্রধান তৃপ্তি মজুমদার,প্রাক্তন পুরপিতা সুখেন মজুমদার, শিক্ষাবিদ নির্মল বসু, হাসপাতালের স্বাস্থ্য আধীক্ষক ডা:অলোক পাল, হাসপাতাল ম্যানেজিং কমিটির চেয়ারম্যান পৌরমাতা স্বপ্না বিশ্বাস সহ বিভিন্ন কাউন্সিলরগন ও বিশিষ্ট জনেরা। মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য মঙ্গলদীপ প্রজ্জ্বলন করে বলেন নব বারাকপুরবাসীর দীর্ঘ দিনের চাহিদা বাস্তবায়িত হল। আপৎকালীন জরুরি প্রাথমিক পরিষেবা। অত্যাধুনিক প্যাথোলজি বিভাগ সহ রাত্রি কালিন জরুরি পরিষেবা পরিষেবা মানুষেরা পাবেন এই জনপদের হাসপাতালে। চিকিৎসক নার্স থাকবে মানুষকে পরিষেবা দিতে। নব বারাকপুরের রুপকার হরিপদ বিশ্বাস এবং বিধান চন্দ্র রায়ের প্রতিমূর্তিতে মাল্যদান ও পরে ফিতে কেটে ফলকের আবরন উন্মোচন করের উদ্বোধক রাজ্যের স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য ও সাংসদ অধ্যাপক সৌগত রায় সহ পুরসভার পুরপ্রধান তৃপ্তি মজুমদার ও প্রাক্তন পুরপিতা সুখেন মজুমদার। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন পুরসভার পুরদলনেতা প্রবীর সাহা। ডা: বিধান চন্দ্র রায় সাধারন হাসপাতাল ও মাতৃসদনে স্থানীয় বিশিষ্ট সমাজসেবী সন্তোষ দেবের আর্থিক অনুদানে এম্বুলেন্স সেবাযান ক্রয় করা হয়েছে। রাত্রি কালিন জরুরি প্রাথমিক চিকিৎসা পরিষেবা উদ্বোধনকে ঘিরে এলাকার উন্নয়নমুখী মানুষের উৎসাহ উদ্দীপনা ছিল চোখে পড়ার মতো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

two × three =