বাইজিদ মন্ডল, দক্ষিণ ২৪ পরগণাঃ- বিগত বছরের সকল জীর্ণতা, জড়তা আর সংকটময় অশুভ আবহ থেকে মুক্ত হয়ে নতুন বছর নতুন আলোয় নন্দিত হোক। বয়ে আনুক শান্তি, স্বস্তি আর মঙ্গলের বার্তা। নড়িদানা স্বপ্নসন্ধান সংস্থার আয়োজনে স্বপ্নসন্ধান পুস্তক সমবায়ের, নবম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে একাধিক কর্মসূচি পালন করা হয়। সম্প্রীতি স্বপ্নদীপ বাগানবাড়ি, বারুইপুর থানা অধিনস্ত বেগমপুরে। বাংলা ১৪২৯ শুভ নববর্ষের শুরুতে অনুষ্ঠান শুরু হয় দুপুর ৩টা থেকে।

মূলত স্বপ্নসেনা ও স্বপ্নসন্ধানীদের নিয়ে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান গান, কবিতা, নাচ, স্মৃতিচারণ, বৃক্ষরোপণ। তার পরদিন আবারও অন্যান্য কর্মসূচির সূচনা হয় সকাল ১০টা থেকে। স্বাস্থ্য শিবির, রক্তদান ও থ্যালাসেমিয়া বিষয়ক কর্মশালা, জৈবচাষ বিষয়ক আলোচনা এবং স্বপ্ননির্মাণের পুনঃসূচনা।

উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, বিশিষ্ট তরুণ চিকিৎসক ডাঃ অমিত মন্ডল, বিশিষ্ট সমাজকর্মী দেবাশীষ দাস, অসীমা দে, দেবাশীষ রায়, বিশিষ্ঠ তরুণ সাংবাদিক জাহির হোসেন, বিকিরণের পক্ষে রুমা চক্রবর্তী, Love Thy Nature এর পক্ষে তুহিন মুখার্জী, পামেলা দত্ত, আপনজন যৌথ সমবায়ের পক্ষে শাশ্বতী গাঙ্গুলি প্রমুখ।

কর্ণধার সুমিত বাবুর কথায়, রোগ, ভোগ, শোক ক্রমশ বাড়ছে। যোগ, বিয়োগ করে এগিয়ে চলা। আমরাও আগুয়ান, সাথে স্বপ্ন জায়মান। আমাদের স্বপ্ন দেখার ভরকেন্দ্রে স্বপ্নসন্ধান। তাকে নিয়েই আমাদের ভালোবাসার, ভরসার ভুবন। এই ভুবনে বাংলা নববর্ষের শুরুতে একটা বিশেষ অভিমুখ নির্মিতির দিন। ঠিক দশটি বছর আগের এমন একটা দিনে স্বপ্নসন্ধানের পুস্তক সমবায়ের পথ চলা শুরু হয়।বাধা, ব্যবধান, ভেদ, বিভেদ ঘুঁচে যাক। সামগ্রিকভাবে আমাদের যে পিছিয়ে পড়া প্রান্তিক এলাকার ছাত্র-ছাত্রী তাদের জীবনের আর্থসামাজিক উন্নয়নের জন্য আমাদের এই মহৎ কাজ।