নিজস্ব সংবাদদাতা, বসিরহাটঃ- সুন্দরবনের প্রান্তিক এলাকা বেশিরভাগ নদীমাতৃক হওয়ায় এবার অভিনব কায়দায় দুয়ারে সরকার পরিষেবা দিল হিঙ্গলগঞ্জের বিডিও অফিসের আধিকারিকরা। জানা যায়, হিঙ্গলগঞ্জ বেশ কয়েকটি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার মানুষ বসবাস করে নদীর পাশ দিয়ে। তাদের কথা ভেবেই এবার যন্ত্রচালিত বোর্ডের মাধ্যমে ওই সমস্ত এলাকায় পৌঁছায় সরকারি আধিকারিকরা।

এই অভিনব উদ্যোগকে এলাকার মানুষের মনে সাড়া ফেলতে স্থানীয় লোকগান শিল্পীদেরও ব্যবহার করা হয়। এই উদ্যোগে গ্রামগঞ্জে মানুষরা ভীষণ খুশি। এই সুবিধা পেয়ে কালিতলা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় বাড়ি স্বপ্না মণ্ডল জানান, কখনো ভাবতে পারিনি বাড়ির পাশে সরকারি আধিকারিকরা এসে সমস্যার সমাধান করে যাবে। অনেকদিন ধরেই ভাবছি মেয়ের কার্ড সার্টিফিকেটের কাগজ জমা করতে যাব। কিন্তু বাড়িতে এসেই সরকারি আধিকারিকের লোকেরা কাগজপত্র জমা নিয়ে গেলেন।

এই বিষয়ে সুন্দরবন এলাকার কালিতলা পঞ্চায়েতের প্রাক্তন প্রধান তথা বর্তমান পঞ্চায়েত সদস্য স্বপন মন্ডল জানান, সব সময় নদী পেরিয়ে দরকারি কাজ মেটাতে পারেন না বাড়ির মহিলারা। তাই তাদের কথা ভেবেই নদীপথে তাদের দুয়ারে পৌঁছানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।