সুন্দরবনকে দেখেই ম্যানগ্রোভ রক্ষায় গুরুত্ব দিলেন মমতা

0

সমীর দাস :- বুধবার দুপুরে উত্তর ২৪ পরগণার ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা বসিরহাট সহ অন্যান্য এলাকা পরিদর্শনে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এলাকা পরিদর্শনের পর সেখানে ক্ষতিগ্রস্তদের ত্রাণ ও পুনর্বাসন ব্যবস্থা নিয়ে প্রশাসনিক পর্যালোচনা বৈঠক করেন তিনি। বৈঠকের পর মৃতদের (পাঁচ টি পরিবার) পরিবারের হাতে ২ লক্ষ ৪০ হাজার টাকার চেক তুলে দেন তিনি।

তাঁর বক্তব্যের কিছু অংশঃ

ঘূর্ণিঝড়ে সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছে পাকা ধানের। প্রায় ১৫ লক্ষ হেক্টর জমির ফসল, এছাড়া সবজি, সরষে নষ্ট হয়ে গেছে। ধান সংরক্ষণের বিকল্প ব্যবস্থা করতে হবে। বিকল্প চাষে উৎসাহ দিন। কৃষি দপ্তরকে আরও তৎপর হতে হবে

ঝড়ের সময় ম্যানগ্রোভই সুন্দরবনকে বাঁচিয়েছে। ম্যানগ্রোভ রক্ষায় গুরুত্ব দিতে হবে। নদীর পাড় যাতে না ভাঙে তার জন্য ঘাস চাষ করতে হবে

পুকুর, রাস্তাঘাট পরিস্কার করতে হবে, ভেঙে পড়া গাছগুলো রাস্তা থেকে সরাতে হবে। অনেক জায়গায় বাঁধ ভেঙে যাচ্ছে নজর রাখুন। এখনও অনেক জমি জলের তলায় জমা জল পরিস্কার না করলে কাজ শুরু করা যাচ্ছে না। পাম্পিং মেশিন দিয়ে চাষের জমিগুলো উদ্ধার করতে হবে

অনেক এলাকার মানুষ এখনও জলবন্দী। পরীক্ষার্থীরা যাতে স্কুলে যেতে পারে সেই ব্যবস্থা করুন, অনেক ছাত্রছাত্রীর বইখাতা নষ্ট হয়ে গেছে, শিক্ষা দপ্তরের তরফ থেকে তাদের বইখাতা সহ প্রয়োজনীয় জিনিস দেওয়া হবে

দুর্গতদের প্রয়োজনীয় শুকনো খাবার, চিড়ে মুড়ি, আলু, ডাল, বিস্কুট, পানীয় জল, ত্রিপল ইত্যাদি দেওয়ার ব্যবস্থা করুন। ১২ কেজি চাল, বেবি ফুড, মিল্ক পাউডার ইত্যাদিও দেওয়া হবে। ইতিমধ্যেই ৬ লক্ষ জলের পাউচ দেওয়া হয়েছে, আরও ৫০ লক্ষ মজুত রাখতে হবে

মোবাইল ট্রিটমেন্ট চালু হয়েছে। প্রত্যেক এলাকায় কিছু মেডিকেল ক্যাম্প করা হবে। সাপে কাটার ওষুধ, জ্বর পেট খারাপের ওষুধ ইত্যাদি মজুত রাখুন

মানুষকে হ্যারিকেন, পরিবার পিছু ৫ লিটার কেরোসিন সরবরাহ করুন

উত্তর ২৪ পরগণায় ১২০০ পোল আর দঃ ২৪ পরগণায় ৬ হাজার পোল বসানো হবে

উত্তর ২৪ পরগণা জেলায় ৫ জন মারা গেছে। প্রায় ৬ লক্ষ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত, ৫ লক্ষেরও বেশি বাড়ি ভেঙে গেছে। ক্ষতিগ্রস্ত বাড়িগুলির মেরামতির ব্যবস্থা করতে হবে। দুর্গতদের সব রকম সাহায্য করবে প্রশাসন

মানুষের সমস্যা সমাধানে প্রশাসনকে অনেক বেশি কাজ করতে হবে, বেশি সময় দিতে হবে। দুর্গতদের ত্রাণ সরবরাহে তৎপর হতে হবে, ত্রাণ সরবরাহে কোনরকম কার্পণ্য করবেন না আর ত্রাণ নিয়ে দয়া করে রাজনীতি করবেন না

প্রায় কয়েক হাজার কোটি টাকা নষ্ট হয়ে গেছে। এটা অনেক বড় ক্ষতি। প্রশাসন অনেক সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিয়েছে, তাই অনেক মানুষের প্রাণ বেঁচেছে

বিপদের সময় মানুষের পাশে দাঁড়ানো সবচেয়ে বড় কাজ। ভালোভাবে খুব দ্রুত উদ্ধার কাজটা করুন যাতে এই ব্যবস্থাপনা আগামীদিনে সারা দেশের মানুষের কাছে একটা মডেল হয়ে থাকে

আগামী ১০ দিনের মধ্যে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে ৬ লক্ষ কিট ব্যাগ দিয়ে সাহায্য করবে সরকার

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

4 × 2 =