Advertisement

সমীর দাস :- গণমাধ্যমের স্বাধীনতার বিচারের যে আন্তর্জাতিক তালিকা তারা প্রকাশ করেছে, তাতে ভারতের অবস্থান ১৩৮-এ এসে দাঁড়িয়েছে। গত বছর ভারতের অবস্থান ছিল ১৩৬। সরকারের সমালোচনামূলক অথবা তথাকথিত জাতীয়তাবাদ বিরোধী যে কোনও সংবাদ প্রকাশ করলেই সাংবাদিকদের হুমকি দেওয়া হচ্ছে – এর প্রতিবাদে সবর হয়েছিলেন ইন্ডিয়ান জার্নালিস্ট এন্ড অল এডিটর এসোসিয়েশন জাতীয় সাধারণ সম্পাদক মৃত্যুঞ্জয় সর্দার , তিনি সারা ভারতবর্ষে সবার প্রথমে সাংবাদিক নিরাপত্তা ও অনলাইন বা ডিজিটাল মিডিয়ার সরকারি স্বীকৃতি দাবী তুলে ছিলেন। সেই দাবি আজ মেনে নিতে চলেছে কেন্দ্রের মোদী সরকার। শীতকালীন অধিবেশনে প্রেস বিট্রিশ আইন পরিবর্তন করে, নতুন আইনি আনতে চলেছেন, সেই আইনি ডিজিটাল মিডিয়াও স্থান পাবে। সারা দেশে যখন একের পর এক হামলা ও হত্যার ঘটনা ঘটছে তখন সাংবাদিকেরাও বাদ যাচ্ছেন না। স্বাধীন মত প্রকাশ করতে গিয়ে যদি একের পর এক সাংবাদিক হত্যার ঘটনা ঘটে কিংবা সাংবাদিকরা হামলার শিকার হন তাহলে এর চেয়ে হতাশাজনক ঘটনা আর কী হতে পারে? খবর সংগ্রহকারী সাংবাদিকরা নিজেরাই খবর হচ্ছেন। প্রতি বছরই একাধিক সাংবাদিকের অপঘাতে মৃত্যু হচ্ছে, কিন্তু সারা জীবন সত্যের পেছনে ছুটে বেড়ানো এসব সাংবাদিকের হত্যা রহস্য হিমশীতল বরফের আড়ালেই থেকে যাচ্ছে। শুধু বিচারই নয়, একটি হত্যাকান্ডেরও রহস্য প্রকাশিত হয়নি। অনেক ক্ষেত্রে হত্যাকারীরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে, যাপন করছে স্বাভাবিক জীবন। কেউ কেউ রয়েছে জামিনে। কেউ আবার মিডিয়াতেই কর্মময় জীবনযাপন করছে। অনেক হত্যাকান্ডের বিচারকার্য এমনকি তদন্তকাজ, চার্জশীট ঝুলে আছে। কয়েকটি মামলার ক্ষেত্রে বছরের পর বছর সময় নিয়েও তদন্ত শেষ করতে পারেনি পুলিশ। এ দীর্ঘ সময়ে সাংবাদিক হত্যারও বিচার না হওয়া রাষ্ট্রের অমার্জনীয় ব্যর্থতা। এ ব্যর্থতার দায় কোন সরকারই এড়াতে পারবে না। রাষ্ট্রের অভ্যন্তরে গণতন্ত্রকে সুসংহত করতে হলে সাংবাদিকদের সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করার বিকল্প নেই।তখনি এক মাত্র ইন্ডিয়ান জার্নালিস্ট এন্ড অল এডিটর এসোসিয়েশন জাতীয় সাধারণ সম্পাদক মৃত্যুঞ্জয় সর্দার , জাতীয় সভাপতি বাসিরুল হক, এবং জাতীয় সংগঠনের সম্পাদক সমীর দাস, দেবাংশু চক্রবর্তী এছাড়াও সাংবাদিকের সব আন্দোলনের পাশে সব সময়ে এগিয়ে এসেছিল আন্তর্জাতিক পুরস্কার বাউল স্বপন দত্ত মহাশয়। ডিজিটাল মিডিয়া সরকারি স্বীকৃতি পেতে চলেছেন সে বিষয়ে এসোসিয়েশন জাতীয় সাধারণ সম্পাদক মৃত্যুঞ্জয় সরদার জানতে চাইলে তিনি বলেন আগে কেন্দ্রীয় সরকার ডিজিটাল মিডিয়া স্বীকৃতি দিক?তাঁর আগে সোনা মোনা তিন জন কাঁনার মতোর অবস্থা। তবে তিনি আরো বলেন সাংবাদিক পাশে সব সময়ে আছেন তিনি! এও বলে লিপির কায্যকারী সম্পাদক দেবাংশু বাবুর উপরে অবিচার চলছে, সে বিষয়ে আন্দোলনে হুশিয়ারি দিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

12 + eleven =