সমীর দাস, কলকাতা :- ভারতবর্ষ তথা বাংলার বুকে সর্বপ্রথম সাংবাদিকদের নিরাপত্তা ও অনলাইন নিউজ পোটালের স্বীকৃতির দাবী তুলেছিলেন ইন্ডিয়ান জার্নালিস্ট এন্ড অল এডিটর এসোসিয়েশন কেন্দ্রীয় সম্পাদক মৃত্যুঞ্জয় সরদার।তবেই একই দাবী নিয়ে কলকাতা প্রেস ক্লাবের সামনে রাষ্ট্রপতি পুরস্কার প্রাপ্ত স্বপন দত্ত বাউল গানের মধ্যেই দাবী তুলেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় কাজে।সাংবাদিক নিগ্রহের প্রতিবাদ করেছেন এবং একাধিক দাবী ছিলো বাউল গানের মাধ্যমে, সরকার ও জনগনকে সচেতন করা। বিশেষ করে অনলাইন নিউজ পোটালের সাংবাদিকদের সরকারি প্রেস কার্ড ও মাসিক ভাতা, অনলাইন নিউজ পোটালের স্বীকৃতির দাবীতে কলকাতার রাজ পথে এবং কলকাতা প্রেস ক্লাবের সামনে রাষ্ট্রপতি পুরস্কার প্রাপ্ত স্বপন দত্ত বাউল, সঙ্গে ছিলেন ইন্ডিয়ান জার্নালিস্ট এন্ড অল এডিটর এসোসিয়েশন কেন্দ্রীয় সম্পাদক মৃত্যুঞ্জয় সরদার।গণমাধ্যমের ওপর হুমকি ও ঝুঁকি বাড়ার পরিপ্রেক্ষিতে সাংবাদিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত এবং গণমাধ্যমের স্বাধীনতার ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা দূর করতে সরকার এবং সরকারের বিভিন্ন সংস্থার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ইন্ডিয়ান জার্নালিস্ট এন্ড অল এডিটর এসোসিয়েশন কেন্দ্রীয় সম্পাদক মৃত্যুঞ্জয় সরদার।। তবে তিনিই সাংবাদিকদের নিরাপত্তায় একটি অভিন্ন নির্দেশনার জন্য রূপরেখার তৈরির ওপর জোর দিয়েছেন। গতকাল কলকাতা প্রেস ক্লাবের সামনে এবং কলকাতা রাজ পথে তাঁর অনুপ্রেরণায় রাষ্ট্রপতি পুরস্কার প্রাপ্ত স্বপন দত্ত বাউল সাংবাদিকদের নিরাপত্তা ও অনলাইন নিউজ পোটালের স্বীকৃতির দাবীতে কলকাতার রাজ পথে।‘সাংবাদিকদের নিরাপত্তাবিষয়ক বাউল শিল্পী স্বপন দত্ত সাথে ও জাতীয় দৈনিক, স্যাটেলাইট চ্যানেল, অনলাইনে কর্মরত সাংবাদিক, সাংবাদিক ইউনিয়নের নেতা, পত্রিকা, শিক্ষাবিদ, নাগরিক সমাজের প্রতিনিধি ও বিশেষজ্ঞরা অংশ নেন কলকাতা প্রেস ক্লাবের সামনে ।সাংবাদিকদের জন্য শারীরিক, মানসিক, আইনি এবং প্রযুক্তিগত বিষয়গুলোও যে গুরুত্বপূর্ণ, সংলাপে অংশগ্রহণকারীরা তা স্বীকার করেন।এবিষয়ে ইন্ডিয়ান জার্নালিস্ট এন্ড অল এডিটর এসোসিয়েশন কেন্দ্রীয় সভাপতি এম ডি বাসিরুল হক বলেন অনলাইন মিডিয়ার সাংবাদিক যতদিন না সরকারি প্রেস কার্ড এবং মাসিক ভাতা পাচ্ছে ততোই দিন বিভিন্ন ভাবে আন্দোলন করবো আমরা কলকাতার রাজ পথে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

12 − 5 =