নিজস্ব সংবাদদাতা, হাবড়া :- সম্পত্তির লোভে মা ও ভাইকে লোহার রড দিয়ে মাথা ফাঁটিয়ে দেবার অভিযোগ দাদার বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় আটক করা হয়েছে অভিযুক্ত দাদাকে। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার সন্ধ্যা নাগাদ উত্তর ২৪ পরগনা জেলার হাবড়ার থানার খারো নিমতলা এলাকায়। আক্রান্তরা হলো সুব্রত মন্ডল ও মা সুমিত্রা মন্ডল। মা ও ছেলে দুজন কে হাবরা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। জানা গিয়েছে, সম্পত্তি নিয়ে ভাইদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরেই বিবাদ চলছিল। অভিযোগ, এদিন সন্ধ্যা নাগাদ ভাই সুব্রত মন্ডল নিজের ঘরে খাবার খাচ্ছিলেন,পেছন দিক থেকে আচমকাই একটি লোহার রড দিয়ে দাদা শংকর মন্ডল বেশ কয়েকবার মাথায় আঘাত করে ভাই সুব্রতর উপর।চিৎকার শুনে তাকে বাঁচাতে এলে মারধর করা হয় তার মা সুমিত্রা মন্ডলকেও।প্রতিবেশীরা তরিঘরি দুজনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় নিয়ে আসে হাবড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে। সুব্রত মন্ডলের মাথায় ২৮ টি এবং মা সুমিত্রা মন্ডলের মাথায় ৮ টি শেলাই দেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে হাসপাতাল সূত্রে। বর্তমানে দুজনেই হাবড়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।আক্রান্তদের তরফে ঘটনায় হাবড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।ঘটনা তদন্তে নেমেছে পুলিশ।অভিযুক্ত শঙ্কর মন্ডলকে আটক করেছেন হাবড়া থানার পুলিশ।