নিজস্ব প্রতিনিধি, বসিরহাট :- সন্দেশখালির ঘটনার এক সপ্তাহের মাথায় অভিযুক্তদের ধরতে তৎপর হয় ন্যাজাট থানার পুলিশ। শুক্রবার রাতে সন্দেশখালি এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয় ঘটনার সঙ্গে যুক্ত থাকা আখের আলী গায়েন, মইজুদ্দিন মোল্লা, জবেদ আলী মোল্লা ও মইনুদ্দিন মোল্লা ওরফে মাজেদ এই ৪ অভিযুক্ত কে। শনিবার ধৃতদের বসিরহাট মহকুমা আদালতে পাঠায় ন্যাজাট থানার পুলিশ। ধৃতদের ১৪ দিনের পুলিশ হেফাজতের আবেদন জানানো হয়েছিল আদালতের কাছে। অভিযুক্ত ৪ যুবককে ৫ দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক। জানা যায়, সন্দেশখালির ভাঙ্গি পাড়ার বিজেপি কর্মী প্রদীপ মণ্ডল ও সুকান্ত মন্ডল এর খুনের ঘটনায় ২৫ জন সহ আরও বেশ কিছু অভিযুক্তের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছিল পুলিশের কাছে। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমে শুক্রবার রাতে চার অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তবে শুক্রবার রাতে পুলিশের হাতে ধৃত চার অভিযুক্তর মধ্যে একমাত্র আখের আলী গাইনের নাম ছিল অভিযুক্তের তালিকা। বাকি তিন অভিযুক্তের বিষয়ে কথা বললে তারা তিনজনই আখের আলীর সহযোগী হিসাবে ছিল বলে জানা যায় পুলিশের পক্ষ থেকে। আখের আলী এই ঘটনার মূল অভিযুক্ত বলে দাবি পুলিশের। সন্দেশখালি ৪ অভিযুক্ত কে গ্রেফতারের বিষয়ে কথা বললে বিজেপির বসিরহাট জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক সরকার বলেন, ” আমাদের অভিযোগের তালিকা শুধুমাত্র আখের আলীর নাম রয়েছে। তালিকায় অন্য অভিযুক্তদের আড়াল করতেই বাকি তিন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ”।