অলোক আচার্য, নববারাকপুরঃ- করোনার গ্রাফ উর্ধ্বমুখী। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ। পরিস্থিতি ক্রমশ উদ্বেগজনক। মাস্ক পরা এবং স্যানিটাইজ বাধ্যতামূলক করেছে সরকার। আংশিক সময়ের লকডাউনে পুরসভা এলাকায় সপ্তাহে তিন দিন বাজার বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পুরসভা। মাস্ক বিহীন ভাবে বহু মানুষ যত্রতত্র ঘোরাঘুরি করছে।

রবিবার সকালে নববারাকপুর পুরসভার উদ্যোগে শহরের গুরুত্বপূর্ণ বাজারগুলিতে দোকানদারদের হকারদের পাশাপাশি সাধারণ মানুষের মধ্যে মাস্ক ও স্যানিটাইজ বিলি করে কোভিড নির্দেশিকার বার্তা তুলে দিলেন পুরসভার প্রশাসক সহ প্রশাসক মন্ডলীর সদস্যরা ও পুর কর্মচারীরা। কোভিড পরীক্ষা সংক্রান্ত নির্দেশিকায় চিকিৎসক স্বাস্থ্যকর্মী কোভিড নোডাল অফিসার সহ কোভিড পরিষেবা সংক্রান্ত যাবতীয় দূরভাষ নম্বর নির্দেশিকা কার্ডে নথিভুক্ত রয়েছে। সাধারণ মানুষ থেকে বাজার দোকান হকারদের ভাই বোনেদের হাতে কোভিড সুচিকিৎসার বার্তা তুলে দিল নববারাকপুর পুরসভা।

পুরসভা এলাকায় পুরাতন বাজার, আমতলা বাজার, সাজিরহাট, নতুন বাজার, বটতলা, সতীনসেন নগর বাজার এবং বিশরপাড়া স্টেশন সংলগ্ন বাজার ব্যবসায়ী দোকানদার হাতে তুলে দেওয়া হল সংক্রমণ রুখতে মাস্ক স্যানিটাইজ ও কোভিড সতর্কিকরণ নির্দেশিকা অভিনব কার্ড ।টোটো মাইকিং করে কোভিড সচেতনতার বার্তা দিলেন নববারাকপুর পুরসভা।নববারাকপুর থানা অগ্নিনির্বাপণ দপ্তর সহ দোকান বাজার হকারদের হাতে কোভিড সতর্কিকরণ হেল্প লাইন নম্বর এর কার্ড ও হ্যান্ড স্যানিটাইজ বোতল বিলি করা হয় এদিন।রবিবার বিকেলে ও কালি বাড়ি রোড থেকে এপিসি রোড ধরে পূর্বাঞ্চল বাজার ব্যবসায়ী দোকানদার দের হাতে মাক্স হ্যান্ড স্যানিটাইজ বোতল এবং কোভিড সতর্কিকরণ বার্তার হেল্প লাইন কার্ড বিলি করা হয়।

উপস্থিত ছিলেন পুরসভার মুখ্য প্রশাসক প্রবীর সাহা, উপ প্রশাসক মিহির দে, প্রশাসক মন্ডলীর সদস্য জয়গোপাল ভট্টাচার্য, সুমন দে, নির্মিকা বাগচী, কোঅর্ডিনেটর মনোজ সরকার সহ পুরসভার বড় বাবু সজল নন্দী মজুমদার সহ পুর কর্মচারীগণ।