সানওয়ার হোসেন, কুলপি :- শনিবার দক্ষিণ ২৪ পরগনার মথুরাপুর লোকসভার অন্তর্ভুক্ত, কুলপি মণ্ডল কমিটির ডাকে শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জির ১২০ তম জন্মদিন উপলক্ষে বিজেপি কুলপি মন্ডলের এক জনসভায় তৃণমূল কংগ্রেস, কংগ্রেস এবং সিপিএম থেকে প্রায় এক হাজার কর্মী-সমর্থক আনুষ্ঠানিকভাবে বিজেপিতে যোগ দিলো। বিজেপি পশ্চিম জেলা সভাপতি অভিজিৎ দাস এর হাত থেকে বিজেপির পতাকা তুলে নিলেন ওই সমস্ত কর্মী-সমর্থকরা। দক্ষিণ ২৪ পরগনার কুলপি ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের আঁতুড়ঘর, সেই আতুর ঘর থেকে এক এক করে সিপিএম কংগ্রেস তৃণমূল কংগ্রেস থেকে বিজেপিতে দিনের পর দিন যোগ দেয়ায় উদ্বিগ্ন কুলপি ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্ব। কুলপি বিধায়ক যোগ রঞ্জন হালদার ঘোষণা করেছেন ইতিমধ্যেই পুরানো কর্মীদের দলে ফেরাতে হবে যে কোনো মূল্যে। তাই আজকের দিনে বিজেপিতে যোগ নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস যথেষ্টভাবে উদ্বিগ্ন। ভারত কেশরী শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জির জন্মদিন এভাবেই একের পর এক তৃণমূল কংগ্রেস, সিপিএম, কংগ্রেস থেকে যোগদান করবে এটা রাজনৈতিক মহলে একটা বড় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা বিজেপি পশ্চিমের সভাপতি অভিজিৎ দাস (ববি) বলেন, মথুরাপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে যিনি জয়ী হয়েছেন তিনি সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ভোটে জয়লাভ করেছেন এই সংখ্যালঘু ভোট আগামী বিধানসভা নির্বাচনে তাদের পক্ষে থাকবে কিনা এখন থেকেই সন্দেহ প্রকাশ করছে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের লোকজন। রাজ্যের উন্নয়ন করছেন সেই উন্নয়ন সাধারণ মানুষের কাছে এখনো পর্যন্ত পৌঁছায়নি এখনো কাট মানি নেয়ার অভিযোগ উঠছে বিভিন্ন প্রকল্পের টাকা বরাদ্দের ক্ষেত্রে। কুলপি ব্লকের বিভিন্ন পঞ্চায়েতে এ ধরনের নমুনা উঠে আসছে আমাদের কাছে। এই সভায় হাজির হয়েছেন রাজ্য সম্পাদক অমিতাভ রায়,জেলা পর্যবেক্ষক হরেকৃষ্ণ দত্ত, জোন কোনভেনর গৌতম চৌধুরী, মথুরাপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী শ্যামাপ্রসাদ হালদার, বিধানসভার কনভেনর বিদ্যুৎ পুরকাইত, প্রবীর রায় সহ জেলা নেতৃত্বেরা।