নিজস্ব সংবাদদাতা, নৈহাটি :- শুধুমাত্র হাল্কা জুতোর সাহায্য নিয়ে ৮-১০ ঘন্টা ভেসে থাকেন নৈহাটি গৌরীপুরের ছাপোষা মানুষ রাজকুমার গোস্বামী। তার এই কৌশলে সাঁতার না জানলেও অনায়াসে ৩ থেকে ৪ ঘন্টা ভেসে থাকা যায়। প্রতিদিন গঙ্গায় স্নান করতে করতে একদিন জলে ভেসে থাকার পদ্বতি হঠাৎই আয়ত্তে করে ফেললেন। এক-দুঘন্টা নয় ৮-১০ ঘন্টা তীব্র স্রোতেও ভেসে থাকেন রাজকুমার গোস্বামী। দুটি পদ্ধতি এবং দুধরনের যোগাসন এর সাহায্যে তিনি জলে ভেসে থাকতে পারেন। তাও আবার জলের নানা প্রতিকূলতা মধ্যেই। রাজকুমারের দাবি, সাঁতার না জানা মানুষও তিন থেকে চার ঘন্টা তার এই পদ্ধতি অবলম্বন করে অনায়াসে জলে ভেসে থাকতে পারবে।শুধুমাত্র একটি ঠান্ডা পানীয়’র বোতল অথবা সাধারণ কিটো জুতো’ র সাহায্য নিয়ে জলে ভেসে থাকা সম্ভব বলে দাবি রাজকুমারের। তবে যোগাসন এখনই দেখাতে না পারলেও কেউ যদি তার কাছে শিখতে আসে তাহলে নিস্বার্থে তাকে সেই যোগাসন শেখাতে প্রস্তুত রাজকুমার। তার এই কৌশলের কারন, কখনো বন্যায় আবার কখনো নৌকাডুবির মতো ঘটনায় আকছার মানুষ জলে ডুবে প্রাণ হারাচ্ছে। যাতে বিপর্যয়ের সময় যাতে কেউ যেন জলে ডুবে প্রাণ না হারায়। এটাই চান রাজকুমার বাবু।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

3 × five =