শিক্ষক দিবসের দিন অবসরপ্রাপ্ত দৃষ্টিহীন শিক্ষককে সংবর্ধনা দিয়ে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিল কাঁকসা থানার পুলিশ

0

সনাতন গরাই, দুর্গাপুর :- রবি মানে সূর্য,আর সূর্যের আলোয় পৃথিবী সতেজ থাকে। ঠিক তেমনি কাঁকসার বিষ্ণুপুরের অবসরপ্রাপ্ত দৃষ্টিহীন শিক্ষকের আলোয় সতেজ কচি কাচা পড়ুয়ারা।সংবাদমাধ্যমে কিছুদিন আগে এই দৃষ্টিদিন প্রধান শিক্ষকের কথা প্রকাশ হয়েছিল।সেটা দেখেই মানুষ বুঝতে পেরেছিল একজন দৃষ্টিদিন হয়েও তার মনের জোরে প্রত্যেকদিন স্কুলে যায় এবং বাচ্চাদের পড়ায়। এই শিক্ষকের হাতে তৈরি স্কুলের বাগানের শান্ত পরিবেশে বাচ্চারা বসে খেলতে পারে। শিক্ষক দিবসের দিন বাচ্চাদের নিয়ে চলে বিভিন্ন অনুষ্ঠান ও খাওয়াদাওয়া।

অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকের কথা জানতেই কাঁকসা থানার আইসি অর্ণব গুহ কাঁকসা থানার পক্ষ থেকে এগিয়ে এসে সংবর্ধনা দিলেন। অর্নব বাবু জানান, আমি এই কথা সংবাদমাধ্যমে জানলাম আর ভেবে রেখেছিলাম শিক্ষক দিবসের দিন কাঁকসা থানার পক্ষ থেকে সংবর্ধনা দিয়ে এই অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করবো। তিনি জানান, রবিলাল বাবু দৃষ্টিহীন হয়েও সূর্যের মতো আলো দিচ্ছেন বাচ্চাদের।অর্ণব বাবু আরও বলেন পড়া মুখস্থ করে লেখা যায়। সেই পড়ার কিছু দাম নেই। যদি তার মনে কোনো আদর্শ না থাকে। মানুষ হতে গেলে আদর্শ সম্মান পেতে গেলে সম্মান দিতে হয়।দৃষ্টিহীন রবিলাল বাবুর আদর্শকে আমরা আমরা সম্মান জানায়। এই রকম মানুষ খুব কমই আছে। অর্ণব বাবু বলেন দলের সর্দার যেমন চলে, তেমনি চলে দলের লোকজন। ঠিক তেমনি এই শিক্ষকের আদর্শে বড় হয়েছে ছোট বাচ্চারা।এখনো কচিকাচারা পড়ছে এবং তারাও এককালীন এই শিক্ষকের আদর্শে বড় হয়ে উঠবে তখন বুঝবে এই শিক্ষক কেমন ছিল। রবিলাল বাবুর পাশে সবসময় দাঁড়ানোর চেষ্টা করবো।

অবসরপ্রাপ্ত দৃষ্টিহীন প্রধান শিক্ষক রবিলাল বাবু জানান আজ আমার পাশে কাঁকসা থানার পক্ষ থেকে দাঁড়ানো হলো সত্যিই নিজেকে গর্বিত মনে হচ্ছে।এর পাশাপাশি সংবাদমাধ্যমকেও অনেক ধন্যবাদ আমার পাশে থাকার জন্য।আর আমি যতদিন পারবো এইভাবেই বাচ্চাদের শিক্ষা দিয়ে চলবো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

two × three =