লোকসভা ভোটের মুখে পাথরপ্রতিমায় প্রাক্তন সিপিএম সদস্য খুন, পরিবারের অভিযোগ তৃণমূলের দিকে

0

পাথরপ্রতিমা, দক্ষিণ ২৪ পরগণা:- ঘটনা সূত্রে জানা যায়, দক্ষিণ ২৪ পরগনা পাথরপ্রতিমা ব্লকের দক্ষিণ লক্ষ্মীনারায়ণপুর গ্রামের বাসিন্দা অজয় কুমার মন্ডল সক্রিয় বামফ্রন্ট সদস্য। বিগত দুবারের বামফ্রন্টের পঞ্চায়েত বিজয়ী সদস্য ছিল। গত পঞ্চায়েত নির্বাচনের পঞ্চায়েত সমিতির প্রার্থী হয়ে লড়াই করে। ঘটনা সুত্রে জানাযায় পঞ্চায়েত সমিতির নমিনেশন তোলার দাবিতে চারদিন ধরে কিডনাপ করে ছিল দুষ্কৃতীরা। চার দিন পরে রক্তাক্ত অবস্থায় রামগঙ্গা বিডিও অফিসে শুয়ে থাকতে দেখা যায়। তখনই থানাতে অভিযোগ হয়েছিল শাসক দলের লোকেরা তাকে কিডন্যাপ করে নমিনেশন তুলতে বাধ্য করছিলো বলে। এমনকি সঙ্গে থাকা মোটরসাইকেল এখনো উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। স্থানীয় সূত্রে জানা যায় গতকাল বামপন্থী কর্মী সম্মেলন ছিল পাথরপ্রতিমা ভাগবৎপুর এলাকায় মিটিং সেরে বাড়িতে ফেরে রাত্রি নটা নাগাদ। তারপর বাড়ীর কাছাকাছি একটি জল নিকাশি তে জাল নিয়ে জাল ফেলতে চলে যায়। রাত বারোটা পর্যন্ত বাড়িতে আসছে না দেখে বাড়ির লোকেরা খোঁজাখুঁজি শুরু করে। কিন্তু কোথাও তাকে পাওয়া যায়নি বলে অভিযোগ। ভোর তিনটের সময় হঠাৎ তাদের চোখে পড়ে বাড়ি থেকে প্রায় এক কিলোমিটার দূরে এক হাঁটু জল এর মধ্যে পড়ে রয়েছে তার মৃতদেহ। তারা মৃতদেহটি তুলে দেখে মুখে ও কাঁধে এবং মাথায় আঘাতের দাগ রয়েছে। মুখ ঘাড় দিয়ে রক্ত পরছে যদিও কেউ কেউ দাবি করছেন স্ট্রোকে মারা যেতে পারে। এলাকার মানুষের প্রশ্ন যদি স্ট্রোকে মারা যায় জালের সেত তার হাতে নেই কেন। আরো জানা যায় এই লোকসভা নির্বাচনের পাথরপ্রতিমা ব্লকের আহ্বায়ক ছিলেন মৃত অজয় মণ্ডল। দোষীদের শাস্তির দাবিতে প্রাক্তন বিধায়ক যজ্ঞেশ্বর দাশের নেতৃত্বে শতাধিক বামপন্থী সমর্থকরা থানার সামনে বিক্ষোভ দেখায়। তারা মৃতদেহ ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে যদিও পুলিশ ময়না তদন্তের জন্য মৃতদেহ কাকদ্বীপে পাঠিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

16 + ten =