লাল রঙের স্বপ্ন

কবি – চঞ্চল মিস্তিরী, বাংলাদেশ

কোন এক মেঘলা দিনে,শনশন বাতাসের মাঝে,
লাল শাড়ি পড়ে অপেক্ষা ছিলো কোনো এক মেয়ে।
লাল শাড়িতে সাজবে বলে,কথা ছিলো লাল খামের চিরকুটের মাঝে লেখা।

হাতে ছিলো এক গুচ্ছ লাল টকটকে ফুল
দাড়িয়ে ছিলো লাল রঙ করা উঁচু দেয়ালের পাশে।

অপেক্ষায় ছিলো লাল ফিতা লাগালো ঘড়ির দিকে,
কখন আসবে, যাকে লালন করছে এতদিন বুকে।

পড়ন্ত বিকেলের সূর্য ডোবা লাল আলোটি,
এসে ওকি দিচ্ছে লাল রেশমি চুড়িতে।
লাল চুড়ির রিনিঝিনি ভেসে বেড়ায় আকাশের তরে
লাল ঝুমকোতে অপরুপ সৌন্দর্য লাগছে তাকে।

আমিও অপেক্ষায় ছিলাম লাল পান্জাবী পরে,
লাল খামে তোলা একটি চিরকুট পেয়ে।
সেই লাল রঙ আমি পড়িয়ে দিয়েছি,এই মেঘলা আকাশ ও পড়ন্ত বিকেলের মাঝে।

প্রকৃতিকে কি চমৎকার লাগছে!

লাল রঙে সেজে
প্রিয়তমার সাথে দাড়িয়ে ছিলাম,
কৃষ্ণচূড়া ফুলফোটানো মুগ্ধকর গাছের নিচে।
বাতাসে শূন্য ভাসছিলো ফুলগুলো মাথার উপরে।

তোমার সাথে দেখা হবে কি?

এমনটি করে,নাকি আমার লাল রঙের সপ্ন হারিয়ে যাবে
কোন এক কালো রঙের আড়ালে।

নাকি লাল হয়ে ওকি দিবে আমার হৃদয়ে।