বাইজিদ মন্ডল, ডায়মন্ড হারবারঃ- শীতের আমেজ ও রৌদ্রোজ্জ্বলে জমজমাটে সমাজের সাধারণ মানুষের সঙ্গে সম্পর্কের বন্ধন আরও সুদৃঢ় করতে লক্ষ্মীপুর ও পূর্ব দুর্গাপুর গ্রামবাসীর যৌথ পরিচালনায় দুই দিনের ধাপাস বল প্রতিযোগিতা আয়োজন করেন। করোনা বিধি নিষেধকে মান্যতা দিয়ে ডায়মন্ড হারবার ১নং ব্লকের অন্তর্গত বাসুল ডাঙ্গা অঞ্চলে লক্ষ্মীপুর জুনিয়ার হাইস্কুলের পার্শ্ববর্তী মাঠে এই খেলা অনুষ্ঠিত হয়।

ফাইনাল ম্যাচ দেখতে উপস্থিত ছিলেন ডায়মন্ড হারবার ১নং ব্লকের যুব সভাপতি গৌতম অধিকারী, অঞ্চল যুব সভাপতি মেহবুব হোসেন মোল্লা, অঞ্চল প্রধান আলপনা হালদার, যুব নেতা ইমরান খান, আলমগীর মোল্লা সহ এই প্রতিযোগিতার সকল সদস্য ও উদ্যোক্তারা। রাজ্য সরকারের নতুন প্রকল্প ‘খেলা হবে’ আর সেই স্লোগান রাজ্য রাজনীতিতে প্রচন্ড জনপ্রিয় হয়। এই স্লোগানকে সামনে রেখে তৃণমূল যেমন রাজনীতির ময়দানে বাজিমাত করছে, তেমন ভাবেই যুব সংগঠন রাজ্য জুড়ে বিভিন্ন খেলাধুলার আয়োজন করছে।

যুব সভাপতি গৌতম অধিকারী বলেন, প্রায় দুই বছর করোনা আবহে মানুষ ঘরবন্দী আছে, এখন সংক্রমণ আগের তুলনায় অনেকটা কম তাই তাদের মুখে হাসি ফোটানোর লক্ষ্যে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায় ও সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের আদর্শকে পথেও করে প্রত্যেক অঞ্চলে এমন ধরনের খেলা ধুলা শুরু করেছি। নিয়মিত খেলা ধুলা ও শরীরচর্চা করলে মন এবং শরীর দুটোই ভালো থাকে । বেশ কিছুক্ষণ এই খেলা উপভোগ করেন মাঠে উপস্থিত সকল পঞ্চায়েত স্তরের সদস্য সহ দর্শক সাধারণ। আর এই জমজমাট ধাপাস বল প্রতিযোগিতায় ফাইনালে শেষ লগ্নে লড়াই দেখতে স্থানীয় ক্রীড়া প্রেমীদের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো।