বাইজিদ মন্ডল, ডায়মন্ড হারবারঃ- গত দুবছর ধরেই করোনা পরিস্থিতির কারণে দক্ষিন ২৪ পরগনা জেলার অন্তর্গত অন্যতম বকখালিতে পর্যটকদের তেমনি ভিড় লক্ষ্য করা যায় নি। তবে এ বছর করোনা কাটিয়ে ঈদ উৎসব উপলক্ষে উপচে পড়া ভিড় লক্ষ্য করা যায় বক খালিতে।

ডায়মন্ড হারবার থেকে ঘুরতে আসা পর্যটকদের মধ্যে থেকে একজন জানায় মুসলিমদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল ফিতর। এক মাস সিয়াম সাধনার পর ঘরে খুশির বার্তা নিয়ে এসেছে ঈদ। করোনা মহামারির কারণে দীর্ঘ দুই বছর একরকম ‘ঘরবন্দি’ অবস্থায় ঈদের নামাজ পরতে হয়েছে। ঘোরাঘুরি তো দূরের কথা, এক বাড়িতে থেকেও একসঙ্গে ঈদ উপযাপন করতে পারি নাই। তবে এবার দেশের সার্বিক করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হওয়ায় কোনো রকম বিধিনিষেধ ছাড়াই ঈদ উপযাপন করছে দেশবাসী। আর সেই ঈদ উৎসব উপলক্ষে মনের আনন্দে বাড়ির সকলকে নিয়ে ঘুরতে আসা।

এদিনও ঠিক একই চিত্র ধরা পরল বকখালি তে, এখানে এক আইস্ক্রিম বিক্রেতা গোপাল মন্ডল জানান, জাঁকজমক করে রাখা হয়েছিল সকল ধরনের নিত্য নতুন খেলনা সহ বাড়ির কাজের জিনিস পত্র। ব্যবসায়ীরা সকাল থেকেই দোকানে সকল ধরনের নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস সাজিয়ে বসেন। বক খালি চত্বর পর্যটকদের মেলার রূপ নেয়, অনেককেই এই গরমের হাত থেকে কিছুটা স্বস্তি পেতে আবার আইস্ক্রিম দোকানে ক্রেতাদের মধ্যে ভিড় জমায়। এদিনও লক্ষ্য করা যায় ঈদ উৎসব উপলক্ষে করে সকাল থেকে বয়স্ক থেকে মাঝারি সহ কচিকাচারা আনন্দে মেতে ওঠে।