বাবু হক, হাওড়াঃ- হাওড়া জেলার ১৫৮ বেলিলিয়াস রোড়ের বেঁটরা সেন্ট থমাস হোম ওয়েল ফেয়ার সোসাইটির আয়োজনে সিএনআইএর সহায়তায় ও জার্মান ডক্টর্স ই ভি জার্মানির আর্থিক অনুদানে হাওড়া জেলার জয়পুর থানার আমতা ২নং ব্লকের খালনা গ্রাম পঞ্চায়েতের পশ্চিম খালনা আনন্দ আশ্রমের আবাসিক , এলাকার দরিদ্র দিনমজুর পরিবারের সদস্যদের ও বাগনান থানার বাক্সি গ্রাম পঞ্চায়েতের রাজাব্রিক ওয়ার্কাস এর ইঁট ভাঁটার শ্রমিক পরিবারের সদস্যদের পাশে দাঁড়াতে এগিয়ে এলো কামিনা সোস্যাল ওয়েলফেয়ার সোসাইটি র সদস্যরা রেশনিং খাদ্য ও অন্যান্য দ্রব্য বিতরণ।

আবাসিক ৩০, এলাকার ১৬৭, ইঁট ভাঁটার শ্রমিক ৫৩ জনকে। তালিকায় ছিল চাল, ময়দা, মুসুরডাল, তেল, সোয়াবিন, বাতাসা, চিঁড়ে, ব‍্যাগ, মশারি, সাবান, মাস্ক, স‍্যানিটাইজার প্রায় ১২ রকম সামগ্রী বিতরণ করা হয় বলে জানান ব্রাদার মার্কুশ টপ্পো আমাদের প্রতিনিধিকে।

বিতরণকে স্মরণীয় করে রাখতে উপস্থিত ছিলেন পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন অতিথি তার মধ্যে অন্যতম হলো সোসাইটির সম্পাদিকা মনিকা নায়েক, এছাড়াও টুম্পা দাস, ধীমান সরকার, রাজেশ তির্কি , মন্টু সি সহ আরো অনেকে।

এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন এক গৃহবধূ আম্বিয়া বেগম। পশ্চিমবঙ্গ বাই সাইকেল ট‍্যুরিষ্ট এ‍্যাসোসিয়েশনের প্রতিষ্ঠাতা উপদেষ্টা ডঃ অনিন্দ্য গোপাল মিত্র এরূপ পদক্ষেপ আরো বেশি বেশি করে করার আহ্বান জানান। ঘনশ‍্যামচক খানকাহ পাক কুল মশাই খানে তরিকতের জুমলা পীরের আস্তানার সেবাদাতা সেখ রেজাউল ওয়াহেদ মহম্মদ মনিরুল হক বলেন আজকে যেভাবে বেঁটরা সেন্ট থমাস ওয়েলফেয়ার সোসাইটি এগিয়ে এসে দরিদ্র দিনমজুর পরিবারের সদস্যদের পাশে থাকলো আমি আশাবাদী আরো বেশি বেশি করে সকলে সহযোগিতার হাত প্রসারিত করবেন সকলে। সকলে ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন সবসময় এই কামনা করি, শ্রদ্ধা নিবেদন করি সকলকে।