সনাতন গরাই, দুর্গাপুর :- বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার আহ্বান – এই ভাবনা ” ভিসন -২০২০” নামে পরিচিত। প্রতিটি ব্লাড ব্যঙ্কের রক্তের ভান্ডার পূর্ণ করার এবং পূর্ণ রাখার লক্ষ্যে দুর্গাপুর মহকুমা ভলান্টারী ব্লাড ডোনার্স ফোরাম পরিকল্পনা সাজিয়েছে মানুষকে রক্তদানে উৎসাহিত করতে, বিভিন্ন ক্লাব – সংস্থার সাথে যুক্ত তরুণ তরুণীদের উদ্ধুদ্ধ করতে।কারণ যৌবনকে বেশী করে চাই রক্তদানে।

সম্প্রতি একটি সার্টিফিকেট কোর্স কর্মসূচি হয়েছে। দুর্গাপুরের ২৫ জন স্বেচ্ছাসেবী পরীক্ষা দিয়ে সসম্মানে পাশ করেছেন। এই স্বেচ্ছাসেবী বন্ধুদের মাধ্যমে দুর্গাপুর মহকুমা ভলান্টারী ব্লাড ডোনার্স ফোরাম রক্তদানে আরও নতুন নতুন মানুষকে যুক্ত করার জন্যে নানান কথা – উপমা – গল্প – গান ও বিজ্ঞান বিষয়গুলি দিয়ে সাজিয়েছে। স্থির হয়েছে প্রশ্নোত্তরের মধ্য দিয়ে অহেতুক ভয় ভীতিগুলি ভাঙ্গানো হবে।এই জন্যে বানানো হয়েছে ৩০০০ প্রচারপত্র। গতকাল মুচিপাড়ায় মৃত্যুঞ্জয় হাউসিং কমপ্লেক্স সম্মেলনী হলে ছিল সংযোগ সংহতি বার্তা সমাবেশ।প্রায় ১০০ জন উপস্থিত ছিলেন।এই প্রোগ্রামে সম্মাননা দেওয়া হয়েছে ২৫ জন প্রচারক স্বেচ্ছাসেবী বন্ধুদের (যারা সম্প্রতি সার্টিফিকেট কোর্স পাশ করেছেন), মহকুমার দূরবর্ত্তি এলাকার ৮টি রক্তদাতা সংগঠনকে এবং ৯ জন অন কল ডোনারদের – যারা এই সময়কালে এক ফোনে রক্তদান করতে এসেছেন।গান – নাচ- কবিতা – গল্পপাঠ – হাসিমজা- কোলাকুলি সহ গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা মধ্য দিয়ে স্থির হয়েছে আগামী কার্যক্রম। রক্তদান আন্দোলন সংশ্লিষ্ট সমাজকর্মীদের যে ৩৩তম রাজ্য সম্মেলন হবে পাঁশকুড়া বনমালী কলেজে ১৮-২০ অক্টোবর’২০১৯,সেখানে দুর্গাপুর মহকুমা থেকে ১৪ জন প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করবেন।

দুর্গাপুর মহকুমা ভলান্টারী ব্লাড ডোনার্স ফোরামের সম্পাদক কবি ঘোষ জানিয়েছেন, আগামী ১৯- ২৮ শে অক্টোবর ৮টি শিবির হবে। সংগ্রহ লক্ষ্যমাত্রা ৩০০ ইউনিট। নভেম্বর – ডিসেম্বর মাস জুড়ে নুন্যতম ২০ টি রক্তদান শিবির করা হবে। ২১-২২ ডিসেম্বর দুর্গাপুরে অনুষ্ঠিত হবে রাজ্যস্তর কর্মশালা। এই কর্মসূচি সফল করতে সবার সাহায্য চাই।