মোদি শেষ হবেন মমতার হাতে :- জ্যোতিপ্রিয়

0

অলোক আচার্য, নিউবারাকপুর :- ক্ষমতায় আসবেন না মোদি। তিনি জেনে গেছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাতে শেষ হবেন। মোদির জবনিকা শেষ। মোদির কোন গঠনমূলক কথা নেই। আমি দিদি কো দেখ লেগা। মুখ্যমন্ত্রীকে আক্রমণ। দমদম লোকসভা কেন্দ্রে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী অধ্যাপক সৌগত রায়ের সমর্থনে নিউ বারাকপুরে স্হানীয় সতীনসেননগর মহাজাতি পরিষদ প্রাঙ্গণে এক বিরাট নির্বাচনী জনসভায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে তীব্র ভাষায় আক্রমণ করে কথাগুলি বলেন রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী তথা জেলার তৃণমৃল কংগ্রেস কমিটির সভাপতি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। রবিবার বিকালে। দমদম লোকসভা কেন্দ্রে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী অধ্যাপক সৌগত রায়ের সমর্থনে নিউ বারাকপুর নির্বাচনী জনসভায় শহরের ২০টি ওয়ার্ড থেকে কর্মী সমর্থকদের জনজোয়ার। খাদ্যমন্ত্রী মঞ্চে উঠেই বলেন আমরা বিভৎস ভয়ঙ্কর পরিস্হিতির মধ্যে দিয়ে এগোচ্ছি। বিচলিত স্তম্ভিত। ঘুম নেই। সকলকে ওপার বাংলায় চলে যেতে। বাংলায় এন আর সি চালু করবেন মোদি সরকার। উদ্বাস্তু কলোনিরা অনুপ্রবেশকারী। জাতীয় নাগরিক পঞ্জি চালুকরবেন। আসামে ৪০লক্ষ বাঙালি গৃহবন্দী। নরেন্দ্র মোদিক বাপ ঠাকুরদাদা। ঠিক করে দেবেন। নীতিনির্ধারক মোদি। মোদি ক্ষমতায় আসলে এন আর সি চালু করবেন। ওপার বাংলায় পাঠিয়ে দেবেন। প্রতিদিন লড়াই হচ্ছে।দয়া করে অনুপ্রবেশকারী কলোনীর লোক বলবেন না। আমরা ভালো করে থাকতে চাই। নরেন্দ্র মোদি যেন না আসতে পারে। ভারতের প্রকৃত নাগরিক হিসাবে। দমদম কেন্দ্রে সৌগত রায়কে নিউ বারাকপুর শহর থেকে ২০ হাজার ভোটের মার্জিনে পুনরায় জয়ী করবেন। সংসদের প্রথম অধিবেশনে মুখ্যমন্ত্রী এর আর সি বিল বাতিল করবেন। নিউ বারাকপুর শহর তৃণমূল কংগ্রেস আয়োজিত নির্বাচনী জনসভায় মঞ্চে খাদ্যমন্ত্রী জোতিপ্রিয় মল্লিক বলেন এবছ জেলায় পাঁচটি লোকসভা কেন্দ্রের দায়িত্বে রয়েছি। পঞ্চম দফার নির্বাচন বনগাঁও ও ব্যারাকপুর নির্বাচনে জয়জুক্ত হয়েছি। কর্মীরা উল্লাসিত। আমরা বিচলিত স্তম্ভিত। ঘুম হয় না। মোদি যা খুশি তাই করছেন। মনে মনে যা ভাবছেন তাই করবেন। গায়ে তকমা দিচ্ছেন উদ্বাস্তু কলোনির। আমরা উদ্বাস্তু নই অনুপ্রবেশকারী নই। ভালোভাবে থাকতে দিন। ঠিক এভাবেই মোদিকে তীব্র ভাষায় আক্রমণ করেন খাদ্যমন্ত্রী। শহরে এলাকার উন্নয়নে সাংসদ তহবিল থেকে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক বাস্তবায়িত কর্মসূচী কথা তুলে ধরেন। নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য রাখেন দমদম লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী অধ্যাপক সৌগত রায়,জেলা তৃণমৃল ছাত্র পরিষদের সভাপতি বানীব্রত চক্রবর্তী,নিউ বারাকপুর শহর তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি সুখেন মজুমদার,পুরদলনেতা প্রবীর সাহা,পুরপিতা সৌমিত্র মজুমদার,শহর তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভাপতি সুমন দে,পৌরপিতা মনোজ সরকার,প্রমুখ। মঞ্চে উপস্হিত ছিলেন নিউ বারাকপুর পুরসভার পুরপ্রধান তৃপ্তি মজুমদার,উপ পুরপ্রধান মিহির দে,জেলা তৃণমৃল নেতা ঋষীকেশ রায়,কোঅপারেটিভ হোমস লিমিটেডের সচিব শীতাংশু শেখর গুহ সহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের কাউন্সিলরগন। সভার সভাপতি সুখেন মজুমদার বলেন দমদম লোকসভা কেন্দ্রে সকলের প্রিয় সাংসদের মধ্যে অভিজ্ঞতার নিরিখে উল্লেখযোগ্য অধ্যাপক সৌগত রায়কে পুনরায় বিপুল ভোটে নির্বাচিত করতে শহরের ২০টি ওয়ার্ড থেকে জনসভায় মাঠ ভরিয়েছেন কর্মী সমর্থকেরা। অধ্যাপক সৌগত রায় বলেন আজকে খুব আনন্দিত দলের সভাপতি এসেছেন। পূর্ন নেতৃত্বের সামনে এসে বক্তব্য রাখছি। গত নির্বাচনে সিপিএম কংগ্রেস বিজেপি হেরেছে। ২২বছর বিধানসভায় ছিলাম সেই সুবাদে সিপিএম প্রার্থীকে দেখিনি। মাধ্যমিক পাশ না করে উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করতে এসেছে। সিপিএমের নেপাল নেপালে যাবে। শমিক বসিরহাটে যাবে বাড়িতে। সিপিএমের রাজনৈতিক ভুলে এই দুর্দশা। সিপিএম কে ধরছি না। শুনছি সিপিএমের একটা অংশের ভোট বিজেপিতে যাবে। বিজেপি সঙ্গে আমাদের শত্রু। বড় বিপদ এন আর সি। সংসদে এই নিয়ে প্রতিবাদ করেছি। ২২লক্ষ হিন্দু বাঙালী রয়েছে। অমিত শাহরা বলছে এন আর সি চালু করবে এই দেশে। নোট বন্দি ও জিএসটি চালু করার ফলে ক্ষতিগ্রস্ত ছোট ব্যবসায়ীরা। মোদীরা থাকলে দেশের ক্ষতি হবে। বিজেপিকে সর্বস্ব ত্যাগ করতে হবে। বড় দায়িত্ব বিজেপিকে ধাক্কা দিতে হবে। এলাকার উন্নয়নের জন্য যা চাইবে তাই করব। সিপিএম বিজেপিকে এই দেশ থেকে তাড়াব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

one × 3 =