অলোক আচার্য, নব বারাকপুরঃ- লাগামছাড়া মূল্যবৃদ্ধি আদতে মোদি সরকারের পরিকল্পিত দুর্যোগ। আর তার জন্য দায়ী কেন্দ্রের জনবিরোধী নীতি। শনিবার বিকেলে পেট্রোল, ডিজেল ও রান্নার গ্যাস এবং জীবনদায়ী ওষুধের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে পথে নামল নব বারাকপুর শহর তৃণমূল যুব কংগ্রেস।

শনিবার বিকেলে পূর্ব কোদালিয়া মরাল বাহিনী মোড় থেকে মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বিরাট প্রতিবাদ মিছিল বের করে। মিছিল শেষ হয় তরুন সংঘের মাঠে। পুরসভার ১৩, ১৭, ১৮নং ওয়ার্ডের তৃণমূল যুব মহিলারা রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ মিছিলে মোদি সরকারের বিরুদ্ধে প্ল্যাকার্ড ফেস্টুন নিয়ে ধিক্কার প্রতিবাদে গর্জে ওঠেন।

মিছিলে উপস্থিত ছিলেন নব বারাকপুর শহর তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভাপতি সুমন দে, স্থানীয় কাউন্সিলার নীতা দে, নিখিল মালো, মিহির দে, নির্মিকা বাগচী, জয়গোপাল ভট্টাচার্য সহ কয়েক হাজার তৃণমূল যুব মহিলারা। ভ্যান রিকশা বাইক, মাথায় রান্নার গ্যাস এবং হাতে উনুন নিয়ে এক অভিনব প্রতীকী প্রতিবাদ মিছিল সাড়া ফেলে দেয় এদিন।

তৃণমুল যুব নেতা ও কাউন্সিলার সুমন দে বলেন, দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির কারণে প্রতিটি রান্নার ঘরে আগুন জ্বলছে। মানুষের সমস্যা বাড়িয়ে অন্যদিকে নজর ঘোরানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। অবিলম্বে পেট্রোল ডিজেল রান্নার গ্যাস ও জীবনদায়ী ওষুধের দাম কমাতে হবে। ১৬দিনে ১৪ বার পেট্রোল ডিজেলের দাম বাড়ানো হয়েছে। রান্নার গ্যাসের দাম ও একধাক্কায় ২৫০ টাকা বেড়েছে। এর প্রতিবাদে শহরে তৃণমূল যুব কংগ্রেস পথে নেমেছে। গত মঙ্গলবার মাসুন্দা ছোট বটতলা মোড় থেকে শুরু হয়েছে ধিক্কার প্রতিবাদী মিছিল। শনিবার দ্বিতীয় দিন। লাগাতার আন্দোলন চলবে বিজেপির এই ন্যাক্কারজনক ঘটনার প্রতিবাদে।