সুজয় মন্ডল, বসিরহাট :- মিনাখাঁ থানার দেবিতলা গ্রামের বাসিন্দা সৈফুদ্দীনের বিরুদ্ধে ভাইজিকে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে শুক্রবার। অভিযোগ শুক্রবার কেউ বাড়িতে না থাকার সুযোগে বছর কুড়ির যুবতী ভাইজির ঘরে ঢোকে সৈফুদ্দিন। আগ্নেয়াস্ত্র দেখিয়ে ভয় দেখিয়ে ভাইঝির উপরে পাশবিক অত্যাচার করে বলে অভিযোগ ওঠে তার বিরুদ্ধে। নির্যাতিতা যুবতীর অভিযোগের ভিত্তিতে শুক্রবার রাতেই কাকা সৈফুদ্দীনকে গ্রেপ্তার করে মিনাখাঁ থানার পুলিশ। একই রাতে বছর ষোলর এক নাবালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে বসিরহাট মহকুমার স্বরুপনগর থানা এলাকায়। স্বরুপনগর থানা থেকে ঢিল ছোড়া দূরত্বে এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকাবাসীদের মধ্যে। সোমবার সকালে লাল্টু ঘোষ নামে আনুমানিক ২২ বছরের এক যুবকের বিরুদ্ধে স্বরূপনগর থানায় অভিযোগ দায়ের করে মেয়েটির পরিবারের লোকেরা। নির্যাতিতাকে রাতেই ভর্তি করা হয় স্বরূপনগর শাঁড়াপুল গ্রামীণ হাসপাতালে। একসঙ্গে শুক্রবার রাতে হাসনাবাদের আঙনারা গ্রামে সাত বছরের একটি শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে ওঠে তাদেরই প্রতিবেশী বছর ৪৫ এর আব্দুল গাজীর বিরুদ্ধে। নির্যাতিতা শিশুটিকে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয় টাকী গ্রামীণ হাসপাতালে। স্বরূপনগর ও হাসনাবাদ এলাকায় দুই অভিযোগের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

thirteen + eleven =