অলোক আচার্য, নববারাকপুরঃ- জেলা জুড়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। একদিকে করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের হাতছানি কিন্তু তাতেও সাধারণ মানুষের সচেতনতা লক্ষ করা যাচ্ছে না। রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে জারি করা হয়েছে করোনা বিধিনিষেধ। আর প্রশাসনের পক্ষ থেকে সাধারণ মানুষদের বারবার আবেদন করা হচ্ছে মাস্ক ব্যবহার ও সামাজিক দূরত্ববিধি মানার কথা। কিন্তু সাধারণ মানুষ তাতেও সচেতন হচ্ছেন না। বেপরোয়া ভাবে বহু সাধারণ মানুষ মাস্ক বিহীন ভাবে ঘোরাঘুরি করছে। বারাকপুর পুলিশ কমিশনারেটের অধীন নববারাকপুর থানার ওসি বিজয় কুমার ঘোষের নেতৃত্বে বুধবার সকালে পথে নামল নববারাকপুর থানার পুলিশ। নববারাকপুর পুরাতন বাজার, সাজিরহাট সব্জি ও মাছ বাজার এবং বিলকান্দা লেনিনগড় বাজার মাইকিং করে প্রচার ও সচেতন করা হয় মাস্ক ব্যবহার করা ও সামাজিক দূরত্ববিধি মেনে চলার কথা।

এছাড়া এদিন রাস্তায় মাস্ক না পরা পথ চলতি মানুষদেরকে মাস্ক বিতরণ ও করতে দেখা যায় নববারাকপুর থানার পুলিশ কে। মাস্ক বিহীন অবস্থায় পথ চলতি ঘোরাঘুরি করা পথেঘাটে বাজারে বহু মানুষ কে মাস্ক তুলে দেওয়ার পাশাপাশি হাত স্যানিটাইজ করেন পুলিশ কর্মীরা। এদিন শহরের বিভিন্ন এলাকায় মাস্ক বিহীন অবস্থায় ঘোরাঘুরি করবার জন্য পাঁচজনকে আটক করে নববারাকপুর থানার পুলিশ।

নববারাকপুর থানার ওসি বিজয় কুমার ঘোষ জানান, কোভিড ও ওমিক্রোম সংক্রমণ ঠেকাতে বারাকপুর পুলিশ কমিশনারেটের অধীন বিভিন্ন থানায় চলছে দুয়ারে পুলিশ। নববারাকপুর থানার উদ্যোগে নববারাকপুর পুরাতন বাজার, সাজিরহাট বাজার ও বিলকান্দা ২ লেনিনগড় বাজারে কোভিড সচেতনতায় মাইকিং প্রচার সহ পথ চলতি মাস্ক বিহীন ভাবে ঘোরাঘুরি করা মানুষদের হাতে মাস্ক ও স্যানিটাইজ করিয়ে সচেতন করা হল। সাধারণ মানুষ সচেতন হলে কিছুটা সংক্রমণ কমবে বলে ধারণা পুলিশের।নববারাকপুরে কোভিড আক্রান্ত পরিবারের পাশে দাঁড়িয়ে মঙ্গলবার রাতে খাবার, মাস্ক ও স‍্যানিটাইজ পৌঁছে দিয়েছেন নববারাকপুর থানার পুলিশ। পুলিশের এহেন মানবিক উদ্যোগে সাধারণ মানুষ খুশি ।