নিজস্ব সংবাদদাতা, দুর্গাপুর :- এক কিশোরকে গাঁজা আনতে বলেছিল ৮ নং ওয়ার্ডের তালতলা বস্তি এলাকার দুইজন যুবক। কিশোর রাজি না হওয়ায় মারধর করে ওই দুই যুবক। পরে ওই কিশোরের বাড়ির লোক জানতে পারলে প্রান্তিকা ফাঁড়িতে এফ আই আর করে ওই কিশোরের পরিবার। তারপরেই ওই দুই যুবকের সাথে বচসা সৃস্টি হয় ওই কিশোরের পরিবারের।প্রান্তিকা ফাঁড়ির পুলিশ তড়িঘড়ি গ্রেফতার করে ওই যুবককে(নতু)। পরে গ্রেফতারের খবর পেয়ে প্রান্তিকা ফাঁড়ি ঘেরাও করে ওই যুবকের পরিবারের লোকজন। পুলিশ বের হলে এলোপাথাড়ি ইট, ঢিল ছুড়তে থাকে। পরে পুলিশ লাঠিচার্জ শুরু করে। কিছুক্ষনের জন্য পরিস্থিতি আয়ত্তে আসে।

কিছুক্ষন পরে ফের শুরু হয় প্রান্তিকা বাসস্টান্ডে ভাঙচুর ও নিশানহাট বস্তি এলাকায় বোমাবাজি। বোমাবাজির জেরে আহত বেশ কয়েকজন পুলিশ কর্মী। পরে পরিস্থিতি আয়ত্তে অনার জন্য আসানসোল দুর্গাপুর পুলিশসুপার অভিষেক মোদির নেতৃত্বে বিশাল পুলিশবাহিনী ও কমব্যাক ফোর্স আসে। শুরু হয় লাঠিচার্জ, লাঠিচার্জের জেরে আহত বেশ কয়েকজন। এই ঘটনায় বেশ কয়েকজনকে গ্রেফতার করেছে এ জোন ফাঁড়ির পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

7 − three =