বাইজিদ মন্ডল, মাথুরাঃ- বিগত প্রায় দুই বছর ধরে করোনা অতিমারীর কারণে এমন ধরনের সকল অনুষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়েছিল, এখন আগের তুলনায় অনেকটা কম কিন্তু করোনা মুক্ত নয়।সঙ্গীত জগতের কিংবদন্তি ত্রয়ী শিল্পীদের স্মরণে মাথুর মানখণ্ড বকুল পিকনিক গার্ডেনে গুটি কয়েক শিল্পী ও শ্রোতাদের নিয়ে করোনা বিধি মেনে মাটির গান লোকায়ত শিল্প চর্চার আয়াস কেন্দ্রের সঙ্গীত শিল্পীদের পক্ষ থেকে পালন করা হ’ল এই দিনটি। মাল্যদান ও সংগীতের মধ্য দিয়ে স্বর্গীয় সঙ্গীত জগতের তিন মহা নক্ষত্র কিংবদন্তি শিল্পী লতা মঙ্গেশকর, সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায় ও বাপ্পী লাহিড়ী কে স্বরণ ও শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করা হয়।

   উপস্থিত ছিলেন দক্ষিন ২৪ পরগনা জেলার বিশিষ্ঠ সাহিত্যিক ঝরস্যয় চট্টোপাধ্যায়, তালবদ্য শিল্পী দোলন ধর, বিশিষ্ঠ সমাজসেবী কার্তিক গাঙ্গুলী, ডি পি ও নেহরু যুব কেন্দ্র সুজিত ভান্ডারী, মাটির গান এর পক্ষে বিশিষ্ঠ সঙ্গীত শিল্পী নিলঞ্জন রায় চৌধুরী ও মানিক পুরকাইত, বিশিষ্ঠ সঞ্চালিকা শাহানারা বেগম।এছাড়াও চারটি লোকও গানের দল শুরশ্রি, আরোহী, পরম্পরা, মাটির গান সহ আরও অনেকে।

মাটির গান এর পক্ষ থেকে নীলঞ্জন রায় চৌধুরী বলেন, এই দুই বছর ধরে করোনা পরিস্থিতি মহামারীর কারণে কত পরিজন কাছের মানুষ ও কত শিল্পী কে আমরা হারিয়েছি। তাদের মধ্যে স্বর্গীয় সঙ্গীত জগতের তিন মহা নক্ষত্র সেই সব শিল্পীদের আত্মার শান্তি কামনা করে এদিন সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়, বাপি লাহিড়ী, লতা মঙ্গেশকর এর প্রতিকৃতি তে মাল্য দান করে শিল্পী কে শ্রদ্ধা জানানো হয়।

এছাড়াও বিভিন্ন জায়গায় থেকে আসা বিশিষ্ট সাহিত্যিক, সঙ্গীত শিল্পী ও বিশিষ্ঠ ব্যক্তিবর্গদের কে স্মারক প্রদান করে সম্মান জানানো হয়। এদিনের অনুষ্ঠানে সঞ্চালিকা করেন শাহানারা বেগম ও মাটির গান এর পক্ষ থেকে পরিচালনা করেন নিলঞ্জনা রায় চৌধুরী। উপস্থিত বিশেষ অতিথি সহ সকল সঙ্গীত শিল্পী থেকে শুরু করে সকলে স্বর্গীয় শিল্পীদের স্মরণে এমন লোকসংস্কৃতি অনুষ্ঠান হওয়ায় সাধুবাদ জানিয়েছেন সংস্কৃতিমনষ্ক মানুষ সহ সকলেই ।