অলোক আচার্য, কেষ্টপুরঃ- কেষ্টপুর শতরূপা পল্লীর ঝুপড়িতে রাত দুটোর পর আগুন লাগে। এক ঘন্টায় ভষ্মিভূত প্রায় ৫০ টি ঝুপড়ি ও বেশকিছু দোকান। প্রথমে দমকলের ছটি ইঞ্জিন এর চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করা হয়। পরে মোট পনেরোটি ইঞ্জিন ও দুটি রোবট আনা হয়।

শতরূপা পল্লীর ঝুপড়ি ও বেশ কিছু খাবারের দোকান সাইকেলের দোকান আসবাবপত্রের দোকান চায়ের স্টল এবং সেলুনও ছিল। তারমধ্যে রাত্রি বাস করতেন কিছু দোকানদার, আগুন লাগার সঙ্গে সঙ্গে তারা দোকান ছেড়ে বাইরে বেরিয়ে আসে।

জানা গিয়েছে, আগুনে ভস্মীভূত হয়ে গিয়েছে ৩৫টি দোকানঘর। সোনার দোকান থেকে শুরু করে সাইকেল সারানোর দোকান, আসবাবপত্রের দোকান থেকে চায়ের দোকান। কোনও কিছুই অবশিষ্ট ছিল আগুনের লেলিহান শিখার সামনে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন প্রথমে একটি ঝুপড়িতে আগুন লাগে তারপর আগুন ছড়িয়ে পড়ে পাশের ঝুপড়ি ও দোকানে। ওই রাতেই ঘটনাস্থলে আসেন দমকল মন্ত্রী সুজিত বসু তিনি পুরো বিষয়টি তদারকির করেন।

পনেরটি দমকল ও দুটি রোবট দিয়ে তিন ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে,আগুন এতটাই ভয়াবহ আকার ধারণ করার কারণ এই ঝুপড়িতে রান্না করার গ‍্যাস সিলিন্ডার ছিল সেগুলো একটার পর একটা ফেটে যাওয়ায় কারণে কয়েকজন বাসিন্দা এবং দুজন দমকল কর্মী জখম হয়েছেন।