মধ্যমগ্রামে বাউল ও লোক উৎসব

0
Advertisement

অলোক আচার্য, মধ্যমগ্রাম :- বাংলার সংস্কৃতির অন্যতম সুপ্রাচীন লোক ও বাউল গানের ধারাকে ধরে রাখতে মধ্যমগ্রামে শুরু হল সপ্তদশ বর্ষের বাউল ও লোক উৎসব। শুক্রবার বিকেলে বনার্ঢ্য শোভাযাত্রার মধ্যে দিয়ে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হল বাউল ও লোক উৎসব। মধ্যমগ্রামের রবীন্দ্র পল্লি নজরুল স্মারক মঞ্চে উদ্বোধনী লালন গীতি”মিলন হবে কত দিন.. আমার মনের মানুষ সনে” পরিবেশন করেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বাউল ও লোকসংগীত শিল্পী গণেশ চন্দ্র রায় বাউল ওতার শিক্ষার্থীরা। বাংলার লোক আঙ্গীকের ধারাকে বজায় রেখে ভিন্ন স্বাদের বাউল, ভাদু, টুসু, ভাওয়াইয়া লোক নৃত্য,সংগীত আবৃত্তি পরিবেশন করেন স্হানীয় বিভিন্ন সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানের নামিদামি শিল্পীরা। তিনদিন ব্যাপী অনুষ্ঠানসূচীর মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা,মেধা অন্বেষণ,বিনা ব্যয়ে স্বাস্থ্য ও চক্ষু পরীক্ষা শিবির এবং পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উৎসব মঞ্চে উপস্হিত ছিলেন রাষ্ট্রপ্রতি পুরস্কার প্রাপ্ত জাতীয় শিক্ষক নিরজ্ঞন বন্দ্যোপাধ্যায়,সা রে গা মা পা খ্যাত বিশিষ্ট সংগীত শিল্পী তানিয়া দাম, জেলা বার ত্রসোসিয়েশনের সম্পাদক অমল মুখোপাধ্যায়, আয়কর দপ্তরের আধিকারিক শান্তনু দাস, গল্পকার সমরেন্দ্র নাথ দত্ত, সমাজকর্মী অনির্বান চৌধুরী,তপন ঘোষ প্রমুখ। সমগ্র অনুষ্ঠানটি সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা করেন বাউল ও লোক উৎসব কমিটির সভাপতি বিশিষ্ট আইনজীবী কমলেশ চন্দ্র সাহা। সার্বিক সহযোগিতায় মধ্যমগ্রাম শিক্ষা সংস্কৃতি পরিষদ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনার দায়িত্বে ছিলেন বাচিক শিল্পী ব্রততী চক্রবর্তী। অনুষ্ঠানকে ঘিরে এলাকার মানুষের উপস্হিতি ছিল চোখে পড়ার মতো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

11 − four =