মগরাহাটে পাওনা টাকা ফেরত চাওয়ায় প্রাণ গেলো পাওনাদারের! বাবা- ছেলের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ দায়ের, অভিযুক্তদের খোঁজে পুলিশ

0
Advertisement

সানওয়ার হোসেন, দক্ষিণ ২৪ পরগণা :- পাওনা টাকা ফেরত চাওয়ায় এক ব্যাক্তিকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুনের অভিযোগ উঠল। শুক্রবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে মগরাহাটের কলসে। পুলিশ দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে। নিহত হানিফ মুন্সী(৫০) স্থানীয় কাশিমপুরের বাসিন্দা। তিনি পেশায় দিন মজুর। পরিবার সূত্রে খবর বিহারের বাসিন্দা সাইদেল নামে এক ব্যক্তি স্থানীয় খনকার বাজারে ভাড়া থাকতেন। অনেক দিন আগে সাইদেলকে প্রায় ৯০ হাজার টাকা ধার দিয়েছিলেন নিহত হানিফ। এরপর বহুবার টাকা চাইলেও সাইদেল বেঁকে বসে। এমনকি টাকা চাওয়ায় হানিফকে খুনের হুমকি দেয় সাইদেল। এদিন রাতে বাড়ি ফিরছিলেন হানিফ। অভিযোগ আচমকা সাইদেল ও তার ছেলে এসে হানিফের পথ আটকায়। এরপর হানিফকে লাঠিদিয়ে বেধড়ক পেটানো হয়। ধারালো অস্ত্র দিয়ে হানিফের মাথা,গলা,পিঠ সহ শরীরের একাধিক জায়গায় কোপানো হয়। রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে পড়ে ধুকতে থাকেন হানিফ। স্থানীয়রা তাঁর চিৎকারের আওয়াজ শুনে ছুটে এলে অভিযুক্তরা পালিয়ে যায়। আশঙ্কা জনক অবস্থায় স্থানীয়রা তাঁকে উদ্ধার করে মগরাহাট গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যান। রাতে হাসপাতালে মৃত্যু হয় তাঁর। এই ঘটনায় মগরাহাট থানায় সাইদেল ও তার ছেলের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ দায়ের করেন নিহতের পরিবার। পলাতক অভিযুক্তদের খোঁজ চালাচ্ছে পুলিশ। শনিবার নিহতের দেহের ময়নাতদন্ত হয় ডায়মন্ড হারবার হাসপাতাল মর্গে। এই ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

five + 17 =