নিজস্ব সংবাদদাতা, কাঁচরাপাড়াঃ- বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগ নিয়ে বন্ধ থাকা বিজেপি কর্মীর বাড়ির দরজা ভেঙে লুটপাট চালালো দুষ্কৃতীরা। রবিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে কাঁচরাপাড়া পুরসভার ২৩ নং ওয়ার্ডে ভূতবাগান রবীন্দ্র পল্লী এলাকায় মহিলা বিজেপি কর্মী সৌরভী রায়ের বাড়িতে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সৌরভী রায়ের একমাত্র পুত্র সন্তান অসুস্থ থাকায় তাঁরা হাসপাতালে গিয়েছিলেন৷ বাড়িতে কেউ ছিল না৷  বাড়ি ফাঁকা থাকার সুযোগে ভোর রাতে দুষ্কৃতীরা কাঁচা বাড়ির সদর দরজা ভেঙে ঘরে প্রবেশ করে লুটপাট চালায়। আলমারির চাবি নিয়ে লকার খুলে চিকিৎসার জন্য লোন নেওয়া নগদ এক লক্ষ পাঁচ হাজার টাকা সহ সোনার অলঙ্কার নিয়ে চম্পট দেয়৷ এমনকি ঠাকুরের গায়ে থাকা গয়না সহ একটি দুই চাকা গাড়ি নিয়ে চম্পট দেয় দুষ্কৃতীরা।

আজ সকালে প্রতিবেশীদের মারফত খবর পায় সৌরভী দেবীর শাশুড়ী শেফালী রায়। বাড়িতে ঢুকতেই দেখতে পান ঘর সব লন্ডভন্ড, সব কিছু খোয়া গিয়েছে৷

সৌরভী দেবীর অভিযোগ, বিজেপি করায় বেশ কিছুদিন ধরে এলাকার তৃণমূলের কিছু দুষ্কৃতীরা আমাদের শাষানী দিচ্ছিল৷ ভোটের পর থেকেই স্বামী সোমনাথ রায় পেশায় রঙ্গ মিস্ত্রী ঘর ছাড়া। ঘরে সব লুট হয়ে গেছে। দিন কয়েক আগে চিকিৎসার জন্য এক লক্ষ টাকা লোন নিয়েছিলাম৷ এখন কিভাবে ছেলে অপারেশন হবে ও দেওরের চিকিৎসা করাবো । দলের নেতৃত্ব কে জানিয়ে বীজপুর থানায় রাতে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বলে জানান সৌরভী দেবী।