সানওয়ার হোসেন,পাথরপ্রতিমা :- দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ১৫ ই এপ্রিল মথুরাপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী শ্যামাপ্রসাদ হালদারকে হেনস্থার অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। বিজেপির জেলা সভাপতি অভিজিৎ দাসসহ আরও কয়েকজন কর্মীকে মারধরও করা হয় বলে অভিযোগ। ঘটনাটি পাথর প্রতিমার গোবর্ধনপুর কোস্টাল থানার সর্দার মোড় এলাকার ঘটে।

গতকাল মথুরাপুর লোকসভা কেন্দ্রের পাথরপ্রতিমা ব্লকের জি প্লটে কর্মিসভা করতে যাচ্ছিলেন শ্যামাপ্রসাদ হালদার, অভিজিৎ দাস এবং বেশ কয়েকজন বিজেপি কর্মী। বিজেপি জেলা সভাপতি বলেন, প্রার্থী ও কর্মীদের নিয়ে যাচ্ছিলেন জি প্লটে। তখনই সর্দার মোড় এলাকায় তৃণমূলের স্থানীয় অঞ্চল সভাপতি নুরউদ্দিন শেখ ও তার দলবল নিয়ে হামলা চালায়। দলের প্রার্থীর কলার ধরে হেনস্থা করা হয়। পুলিশ বাধা দিতে গেলে তাদেরও ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দেওয়া হয়। অভিজিতবাবু আরও বলেন, যে ইঞ্জিন ভ্যানে করে আমাদের কর্মী সমর্থকরা জি প্লটে যাচ্ছিলেন সেই ভ্যানচালককেও হুমকি দেওয়া হয়। পরে গোবর্ধনপুর কোস্টাল থানা থেকে আরও পুলিশ আসায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

তৃণমূলের হামলায় দলের ২ জন কর্মী আহত হয়েছেন বলে বিজেপি-র বক্তব্য। জেলা সভাপতি বলেন, পঞ্চায়েত ভোটে এই সমস্ত এলাকায় বিরোধীদের ঘরছাড়া করে রাখা হয়েছিল। তাই রাজ্য পুলিশে তাঁদের আস্থা নেই। এই এলাকায় কেন্দ্রীয় বাহিনী দিয়ে ভোট করানোর জন্য কমিশনের কাছে আবেদন জানিয়েছি।

অন্যদিকে বিজেপি প্রার্থী ও কর্মীদের উপর হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেন তৃণমূল। গোটা ঘটনা খতিয়ে দেখছে গোবর্ধনপুর কোস্টাল থানার পুলিশ।