ভারতীয় ফুটবলে নক্ষত্র পতন, প্রয়াত কিংবদন্তি ফুটবলার প্রদীপ কুমার ব‍্যানার্জী

0

সমীর দাস, কলকাতাঃ- আজ দুপুর ২:০৮ মিনিটে কলকাতায় এক বেসরকারী হাসপাতালে ৮৩ বছর বয়সে প্রয়াত হলেন প্রবাদ প্রতীম প্রাক্তন জাতীয় ফুটবলার মোহনবাগান রত্ন প্রদীপ কুমার ব‍্যানার্জী ওরফে পিকে ব‍্যানার্জী। এদিন সকাল থেকে আরও সঙ্কটে চলে গিয়েছিলেন পিকে। খবর পেয়ে হাসপাতালে পৌঁছে যান রাজ্যের ক্রীড়ামন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস।

দুপুরে চিকিৎসকদের লড়াই ব্যর্থ করে চিরতরে চলে গেলেন দেশের অন্যতম সেরা ফুটবল নক্ষত্র। প্রবাদপ্রতিম ফুটবলারের প্রয়াণে শোকস্তব্ধ দেশের ফুটবল মহল। তাঁর শেষকৃত্যর সময় ও স্থানের বিষয়ে এখনও কিছু জানানো হয়নি। বার্ধক্যজনিত কারণে দীর্ঘদিন ধরে ভুঁগছিলেন পিকে। তার পাশাপাশি ছিল স্নায়ুর রোগও। জানুয়ারি মাসের তৃতীয় সপ্তাহে অসুস্থতা বাড়লে তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়। সেই ধাক্কা সামলে অবশ্য কিছুদিনের মধ্যেই বাড়িতে ফেরেন তিনি। কয়েকদিন পর ফের অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি।

প্রয়াতঃ পিকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে
রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর

আবারও ভর্তি করতে হয় হাসপাতালে। সেই থেকে প্রায় একমাস বাইপাসের ধারের ওই হাসপাতালই ঠিকানা ছিল প্রাক্তন ভারতীয় ফুটবল নক্ষত্রের। সম্প্রতি রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে তাঁর চিকিৎসার যাবতীয় খরচ বহনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। হাসপাতাল সূত্রে খবর, কয়েকদিন ধরে অতিসঙ্কটজনক ছিল প্রাক্তন তারকার শারীরিক অবস্থা। রাখা হয়েছিল ভেন্টিলেশনে।

প্রয়াতঃ পিকে কে শ্রদ্ধা জানাতে মোহনবাগানের
সচিব সৃঞ্জয় বসু, তৃণমূল মন্ত্রী ও সাংসদরা

নিউমোনিয়ার জেরে তাঁর ফুসফুসে মারাত্মক সংক্রমণ ছড়িয়েছিল। জীবনদায়ী ব্যবস্থায় রেখেও লাভ হয়নি। শেষদিকে চিকিৎসায় সাড়া দেওয়াও বন্ধ করে দিয়েছিলেন।

কিংবদন্তি ফুটবলার ও কোচ প্রদীপ কুমার ব্যানার্জি (পি কে ব্যানার্জী)-র প্রয়াণে শোকবার্তায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গভীর শোক প্রকাশ করছেন। প্রয়াত পি কে ব্যানার্জীর আত্মীয় পরিজন ও অনুরাগীদের আন্তরিক সমবেদনা জানায়

পশ্চিমবঙ্গ সরকার ২০১৩ সালে ফুটবলার পি.কে. ব্যানার্জী কে ‘বঙ্গবিভূষণ’ সম্মান প্রদান করে। এছাড়া তিনি অর্জুন পুরস্কার, পদ্মশ্রী, ফিফা অর্ডার অফ মেরিট, এশিয়ান গেমস স্বর্ণপদক সহ অজস্র সম্মান ও পুরস্কার পান। তাঁর প্রয়াণে ক্রীড়া জগতের অপূরণীয় ক্ষতি হল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

15 − six =