সানওয়ার হোসেন, ভাঙড় :- শতাব্দী প্রাচীন ভাঙড় উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী রাজিয়া খাতুন ২০১৯ উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় নজরকাড়া ফল করেছে। কলা বিভাগ থেকে সে পেয়েছে ৪৬০ নম্বর। শতকরা হিসেবে যা ৯২ শতাংশ। তাতে কি হাসি নেই মুখে তার। মাধ্যমিকে ভালো রেজাল্ট করলেও সাইন্স নিয়ে পড়া হয়নি পারিবারিক অর্থনৈতিক অনাটনের জন্য। এক রকম বাধ্য হয়ে আর্টস নিয়েই ভাঙড় হাইস্কুলে ভর্তি হয়েছিলো। অধরা থেকেছিলো সাইন্স নিয়ে পড়া।

বাবা সামান্য রাজ মিস্ত্রির কাজ করেন। পরিবারে ৬জন সদস্য। চার বোনের রাজিয়া সকলের বড়। মেজ বোন ষষ্ঠ ও সেজ বোন দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ে। সব থেকে ছোট বোন এখন মায়ের কোলেই থাকে। সকলের খরচ চালাতে বাবা হিমশিম। ভালো রেজাল্ট হয়েছে, ইংরেজি নিয়ে পড়তে চাই সে, কিন্তু মনে শান্তি নেই বাবা চালিয়ে যেতে পারবেতো পড়াশোনার খরচ? প্রশ্নটা মাথায় জমাট বেধে আছে। রোমজান মাস তাই রোজা রেখেছে রাজিয়া। স্কুল থেকে বাড়ি ফিরে পরিবারের কাজে হাত লাগায়। সময় পেলে বোনেদের পড়াশুনায় সাহায্য করে। স্বপ্ন দেখে বড় হওয়ার। কিন্তু বাধ সাধে অর্থনৈতিক অনাটন। স্কলারশিপ পেলে সুবিধা হবে জানায় রাজিয়া।