বুলবুল নেই! কিন্তু রাস্তার দিকে এখন বিপদজ্জনক ভাবে পরে রয়েছে গাছের অংশ

0

সুজয় মন্ডল, বসিরহাট :- বসিরহাট মহকুমার হাসনাবাদ হিঙ্গলগঞ্জে বেশ কিছুদিন বিধ্বংসী বুলবুল ঝড়ের দাপটে অসংখ্য গাছ পড়েছিল রাস্তা বরাবর। সেই সমস্ত গাছগুলি স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে কেটে নেওয়া হয়েছে। কিন্তু থেকে গেছে বেশ কিছুটা গাছের অংশ রাস্তার দিকে বিপদজ্জনক ভাবে। যেকোনো সময় ঘটে যেতে পারে বড় সড়ক সড়ক দুর্ঘটনা। হাসনাবাদ বনবিবি সেতু থেকে হিঙ্গলগঞ্জ লেবুখালী পর্যন্ত অসংখ্য গাড়ি দিনরাত চলাচল করে। একটু বেসামাল হলেই যেকোনো মুহূর্তেই বড় দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে এই আশঙ্কা প্রকাশ করছেন স্থানীয় গাড়ি চালকরা।

এছাড়াও সাইকেল , পা ভ্যান এবং যে সমস্ত গাড়ির সামনে লাইটের ব্যবস্থা নেই সেই সমস্ত গাড়ির রাতের অন্ধকারে যেকোনো সময়ে দুর্ঘটনার কবলে পরে যেতে পারে এই আশঙ্কা করছে নিত্যযাত্রীরা। এছাড়াও মেন রাস্তার উপরে দাঁড়িয়ে থাকা যে সমস্ত গাছ বুলবুল ঝড়ের দাপটে পড়ে গেছে তা রাস্তার বেশ কিছুটা অংশ নিয়ে পড়ে যাওয়ার ফলে সেই জায়গায় বড় বড় গর্ত হয়ে আছে। এরই ফলে মরণফাঁদ আকার ধারণ করে আছে হাসনাবাদ থেকে লেবুখালী কয়েক কিলোমিটার রাস্তাটি। সেই সমস্ত জায়গা থেকে গাছগুলোকে কেটে সরিয়ে নেওয়া হলেও আজও পর্যন্ত ওই রাস্তা এবং গর্ত জায়গাটির মেরামতি করা হয়নি হাসনাবাদ এবং হিঙ্গলগঞ্জের প্রশাসনিক তরফ থেকে। এই বিষয় নিয়ে স্থানীয় বাসিন্দারা রাজেশ লস্কর বলেন সবথেকে বেশি সমস্যা এবং ভয়াবহ পরিস্থিতি বরুনহাট, পোস্ট অফিস মোড় , লাউতলা ও বরুণ হাটের লস্কর পাড়া, এই সমস্ত জায়গায় যত দ্রুত সম্ভব প্রশাসনের তরফ থেকে ঠিক করে দেওয়া উচিত। এই ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তা এবং বিপদজনক গাছের গুড়ির বিষয় হাসনাবাদ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি লক্ষ্মী দোলুই বলেন আমরা দ্রুত গতিতে কাজ করছি এখনো পর্যন্ত যেসব জায়গায় এই সমস্ত গাছের গুড়ি পড়ে আছে এবং রাস্তার ক্ষতি হয়েছে তা আমরা দ্রুততার সাথে ওই সমস্ত জায়গায় মেরামতের ব্যবস্থা করবো হাসনাবাদ পঞ্চায়েত সমিতির পক্ষ থেকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

nine + four =