বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাসে মেয়ে অন্তঃসত্ত্বা, ছেলের বাড়িতে ধর্ণায় নাবালিকা

0
Advertisement

নিজস্ব সংবাদদাতা, দক্ষিণ ২৪ পরগণা :- বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাসে মেয়ে অন্তঃসত্ত্বা, ছেলের বাড়িতে ধর্ণায় নাবালিকা। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পাথর প্রতিমা থানার মাধবনগরের দুর্গা গোবিন্দপুর বাড়ি, নিখিল ভূঁইয়ার ছেলে সুপ্রিয় ভূঁইয়া পাশের গ্রামের দক্ষিণ শিবগঞ্জ বারুইপাড়া বাড়ি নিশিকান্ত বাড়ুই এর নাবালিকা মেয়ে প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে বহুদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। মন দেওয়ার পাশাপাশি শারীরিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে তারা। নাবালিকা তখন দশম শ্রেনীর ছাত্রী। চলতে থাকে লুকিয়ে লুকিয়ে সহবাস। প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠার পর দশম শ্রেণীতে পড়াশোনার পাঠ চুকিয়ে ফেলে। তারপরে লাগামছাড়া হয়ে যায় ছেলে আর মেয়ে দিনের পর দিন বাইরে রাত কাটাতো বলে অভিযোগ। তার ফলে বর্তমানে ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা নাবালিকা। আর শরীর লুকিয়ে রাখা সম্ভব হয়নি মেয়েটির, জানতে পারে মেয়েটির মা। আস্তে আস্তে এলাকায় কানাঘুষা শুরু হয়ে যায়। মেয়ের পরিবার ছেলের পরিবারের কাছে যায়। ছেলের পরিবার তাদের ঘর থেকে বার করে দিতে উদ্যত হয়। শেষ পর্যন্ত পাথর প্রতিমা থানায় অভিযোগ করে মেয়ের মা। ছেলের পরিবারকে হাজির করার কথা বলে, কিন্তু থানা তে হাজির করার প্রতিশ্রুতি দিয়েও ছেলের বাড়ির লোক সে কথা রাখেনি। আজ সকালে মেয়ের বাড়ির লোকজনসহ মেয়ে, ছেলের বাড়িতে এসে ধরনায় বসে। ছেলের বাবা এবং মা গ্রামবাসী এবং মেয়ের উপরে চড়াও হয়। এগিয়ে আসে গ্রামের লোকজন। তারা প্রতিবাদ করে। খবর যায় পাথরপ্রতিমা থানায়। পুলিশ ছেলের বাবা এবং মাকে থানায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে আসে।

প্রশাসন সূত্রে জানা যায় ছেলের বিরুদ্ধে ধর্ষণ এবং পোক্সো আইনের মামলা করা হচ্ছে। এমনকি তার পরিবারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধারায় অভিযোগও আনা হচ্ছে। এখন এই নাবালিকার শেষ পরিণতি কী হবে গর্ভের সন্তান পিতৃ পরিচয় পাবে সেটাই এখন এলাকার মানুষের জিজ্ঞাসা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

thirteen − twelve =