বিজেপি ও তৃণমূলের মৃত কর্মীদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে সন্দেশখালি আসেন বিধানসভার বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নান ও সুজন চক্রবর্তী

0
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি, সন্দেশখালির :- সন্দেশখালির ঘটনার পরে কেটে গেছে দশটা দিন। ঘটনার পরে যেমন রাজনৈতিক সংঘর্ষে মৃত তৃণমূল কর্মী কাইয়ুম মোল্লার পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলেন তৃণমূল নেতারা তেমনই একই ঘটনায় মৃত বিজেপির প্রদীপ মণ্ডল ও সুকান্ত মন্ডল এর পরিবারের পাশে দাঁড়াতে দেখা গিয়েছে বিজেপি নেতৃত্বকে। বিজেপি ও তৃণমূল কেউই বিপরীত দলের মৃত কর্মীর বাড়িতে না গেলেও মঙ্গলবার দু’ দলেরই মৃত কর্মীর পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে সন্দেশখালি আসেন বিধানসভার বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নান ও সুজন চক্রবর্তী , কাজী আব্দুর রহিম দিল সহ বাম ও কংগ্রেস নেতারা। এদিন দুপুরে প্রথমে সন্দেশখালির ভাঙ্গি পাড়ায় মৃত বিজেপি কর্মী প্রদীপ মণ্ডল ও সুকান্ত মন্ডল এর বাড়িতে যান তারা। মৃত বিজেপি কর্মীদের পরিবারের সঙ্গেও কথা বলেন। সেই সঙ্গে ঘটনার পর থেকে নিখোঁজ বিজেপি কর্মী দেবদাস মন্ডলের পরিবারের সঙ্গেও কথা বলেন তারা। এরপর সেখান থেকে ঘটনায় মৃত তৃণমূল কর্মী কাইয়ুম মোল্লার বাড়িতে যান বিরোধী দলের সদস্যরা। বিরোধী দলের বিধায়কদের কাছে এলাকায় শান্তি ফেরানোর দাবিতে আর্জি জানান সন্দেশখালির আক্রান্ত পরিবারের সদস্যরা। সন্দেশখালির ঘটনা নিয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলে বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নান বলেন, ” মুখ্যমন্ত্রীর উস্কানি মূলক মন্তব্যের জেরে রাজ্য জুড়ে এই ধরনের ঘটনা ঘটে চলেছে”। সন্দেশখালির ঘটনার পরে মুখ্যমন্ত্রী সেখানে না আসার জন্য কটাক্ষ করে মুখ্য মন্ত্রীর পদত্যাগের দাবি করেন বিরোধী দলনেতা। একইসঙ্গে সন্দেশখালির ঘটনা নিয়ে বিরোধীদের পক্ষ থেকে বিধান সভায় উত্থাপন করা হবে বলে জানান সুজন চক্রবর্তী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

18 − 10 =