সুজয় মন্ডল, বসিরহাট :- হাড়োয়ার কচুরহুলা গ্রামের বাসিন্দা শিশু কুমার সওদাগর। এলাকার সক্রীয় বিজেপি কর্মী হিসেবে পরিচিত তিনি। গত ১৯ মে ভোটের দিন বিজেপির হয়ে স্থানীয় বুথে পোলিং এজেণ্ট হিসেবে বসেছিলেন। সেই অপরাধে সেদিনের পর থেকে শাসক দলের নেতাদের কুনজরে পড়তে হয় তাকে। ভোট পর্ব মিটে যাওয়ার পর তার বাড়ি থেকে বাইরে বেরোনোর রাস্তার মুখে বাঁশের বেড়া দিয়ে আটকে দেওয়া হয়। বাড়ির সামনে রাস্তা আটকে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। ওই অঞ্চলের তৃণমূলের প্রধান মানস মাহাত সহ বেশ কিছু তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলেন ওই বিজেপি কর্মী। শুধু বাঁশের বেড়া দিয়ে ঘরে ঢোকার রাস্তা আটকানো নয়, এর পাশাপাশি বাড়ির বাইরে বেরোলে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি ও বাড়ির মহিলাদের ধর্ষনের হুমকিও দেওয়া হচ্ছে বলে তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলেন তিনি। এই ঘটনার বিরবণ জানিয়ে হাড়োয়া থানায় লিখিত অভিযোগও জানিয়েছেন তিনি। কিন্তু তারপরও পুলিশ কোন ব্যবস্থা নেয়নি বলেও অভিযোগ ওঠে বিজেপির পক্ষ থেকে।