সনাতন গরাই, দুর্গাপুর :- শুক্রবার সাতসকালে প্রতিবেশী এক যুবকের ছুরির কোপে জখম জখম হল এক গৃহবধূ।কাজের লোক এসেছে ভেবে দরজা খোলে ওই গৃহবধূ,আর দরজা খুলতেই ধারালো অস্ত্র বসে একদম গলায়।আক্রান্ত গৃহবধূর নাম সংযুক্তা মুখার্জী দুর্গাপুর বিধাননগর হাউসিং আবাসনের বাসিন্দা।অভিযুক্ত প্রতিবেশী যুবকের নাম রঞ্জিত পান্ডে।ঘটনার সূত্র ধরে জানা গেছে বছর খানেক আগে প্রতিবেশী যুবক রঞ্জিত আক্রান্ত গৃহবধূকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়,সেই প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ভেতরে ভেতরে রাগে গুম হয়েছিল।সেই রাগের ভিত্তিতে সুযোগ বুঝে সংযুক্তার বাড়িতে ঢুকে ধারালো ছুরির কোপ বসায় ওই অভিযুক্ত।মেয়ের চিৎকার শুনে ছুটে আসে তার বাবা মা,ছুরির কোপে আক্রান্ত হয় তার বাবা মাও।সবাই মিলে চিৎকার করলে অভিযুক্ত ওই ব্যক্তি ভয়ে পালায়।এলাকার মানুষ ওই রক্তাক্ত গৃহবধূকে দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যায়।পরে পুলিশ ওই অভিযুক্ত ব্যাক্তিকে গ্রেফতার করে,এবং পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।এলাকার মানুষ জানায় দুর্গাপুর জুড়ে যেভাবে সন্ত্রাস চলছে নিরাপত্তা জোরালো না হলে আমাদেরও এইভাবেই আক্রান্ত হতে হবে যেকোনো মুহূর্তে।