সংবাদদাতা, বারাসাত :- বারাসতে বিজেপি-তৃণমূল সংঘর্ষ অগ্নিগর্ভ হয়ে উঠল। বিজেপি ও তৃণমূলের সংঘর্ষ চললো ইট বৃষ্টি, বোমাবাজি। দুই দলের রাজনৈতিক সংঘর্ষে পরিস্থিতি সামাল দিতে এলাকায় নামানো হয়েছে র‌্যাফ । ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার বারাসাতের ময়না চেক পোস্ট এলাকার দ্বীজহরি দাস কলোনিতে তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গে বিজেপি কর্মীদের সংঘর্ষ। সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে আক্রান্ত পুলিশ। পাল্টা হামলায় আহত আরো ৫ জন বাসিন্দা। এদের মধ্যে একজন শিশু রয়েছে। লোকসভা নির্বাচনের পর ঐ এলাকায় ঘরছাড়া বেশকিছু তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী ও সমর্থক। অভিযোগ বিজেপি কর্মীদের ভয়ে তারা এলাকায় ঢুকতে পারছেন না। বিজেপির পাল্টা অভিযোগ তৃণমূলের বেশ কিছু স্থানীয় নেতা ও কর্মী লোকসভা নির্বাচনের আগে এলাকায় লুঠ ও সন্ত্রাসের রাজত্ব চালিয়েছিল। দ্বীজহরি দাস কলোনিতে লোকসভা নির্বাচনে মানুষ সন্ত্রাসের হাত থেকে বাঁচতে বিজেপিকে ভোট দেয়। এবং ঐ ওয়ার্ডে তৃণমূল কংগ্রেস অনেক ভোটে হেরে যায়। এর পর আক্রান্ত হবার আশঙ্কায় তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা কর্মীরা এলাকা থেকে ঘাঢাকা দেয়। সপ্তাহ দুএক আগে বিশাল পুলিশ বাহিনীকে নিয়ে স্থানীয় কাউন্সিলর ঘরছাড়াদের ঘরে ফেরাতে উদ্যত হন। কিন্তু গণপ্রতিরোধের মুখে পরে ফিরে আসে। ব্যর্থ হয় প্রচেষ্টা। এরপর থেকেই এলাকায় আরো উত্তেজনা দেখা দেয়। সামাজিক নিরাপত্তা পেতে এলাকার বাসিন্দাদের নেতৃত্বে গড়ে ওঠে সন্ত্রাস প্রতিরোধ কমিটি। বৃহস্পতি বার রাতে বারাসাত থানার পুলিশ এলাকায় গেলে স্থানীয় বাসিন্দারাই হামলা চালায় তাদের ওপর। তবে মাঝে মধ্যেই বোমাবাজি চলছে। এখনও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা যায়নি বলে জানা গিয়েছে ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

eleven − ten =