বাংলাদেশ
চঞ্চল মিস্তিরী, মঠবাড়িয়াঃ- ২২৫ কিঃ মিঃ উপকূল দিয়ে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় আম্ফান।বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে লকডাউনের মধ্য দিয়ে সারাদেশ প্রায় বিচ্ছিন্ন অবস্থায় রয়েছে। এরমধ্যেই আম্ফান নামের ঘূর্ণিঝড় এসে দরজায় করা নারছে। যা এখন সুপার সাইক্লোনে রুপ নিয়েছে।

বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর এর আবহাওয়ার বিশেষ বিজ্ঞপ্তি (ক্রমিক নং ২০) সূত্রে জানা যায়, ঘূর্ণিঝড় আম্ফান বাংলাদেশের খুলনা ও পিরোজপুর মধ্যবর্তি অঞ্চল দিয়ে আজ মঙ্গল বার (১৯ মে) শেষ রাত থেকে (২০ মে) বুধবার বিকেল অথবা সন্ধার মধ্যে বাংলাদেশ উপকূল অতিক্রম করবে। সুপার সাইক্লোনের কেন্দ্রের ৯০ কি. মি. এর মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘন্টায় ২২৫ কি. মি. যা দমকা বা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ২৪৫ কি. মি. পর্যন্ত বৃদ্ধি পেতে পারে। সুপার ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের নিকটে সাগর খুবই বিক্ষুব্ধ রয়েছে।

এদিকে সুপার ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের জন্য পায়রা ও মংলা সমুদ্র বন্দরকে ৭ নম্বর মহা বিপদ সংকেত একই সাথে চট্রগ্রাম ও কক্সবাজার সমুদ্র বন্দরকে ৬ নম্বর মহা বিপদ সংকেত দেখানো হয়েছে।