সংবাদদাতা, বসিরহাটঃ- ভোট-পরবর্তী হিংসায় ঘরছাড়া বিজেপি কর্মীদের দেখতে বৃহস্পতিবার বসিরহাটে যান বিজেপির কেন্দ্রীয় কমিটির সম্পাদক তথা রাজ্যসভার এমপি গৌতম কুমার দুষ্মন্ত। ঘরছাড়া বিজেপি কর্মীদের সঙ্গে কথা বলার পরে বসিরহাট জেলা পার্টি অফিসে সাংবাদিক সম্মেলন করেন তিনি।

এদিন তার সঙ্গে জেলা পার্টি অফিসে সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বসিরহাট জেলা কমিটির সভাপতি তারক ঘোষ সহ জেলা নেতৃত্ব। সাংবাদিক সম্মেলনে বিজেপি কর্মীদের ওপর হামলার বিষয়ে উল্লেখ করতে গিয়ে কেন্দ্রীয় সম্পাদক গৌতম কুমার দুষ্মন্ত বলেন, রাজ্যে নতুন সরকার আসার সঙ্গে সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গের পরিস্থিতি পরিবর্তন হয়ে গেছে। এটা খুবই দুঃখের কথা। রাজ্যজুড়ে খুঁজে খুঁজে বিজেপি কর্মীদের ওপরে হামলা, বিজেপির মহিলা কর্মীদের ওপর ধর্ষণ করে খুন এর ঘটনা খুবই দুঃখজনক।

এই রকম বেশ কয়েকটি জায়গায় আমরা পৌঁছে ছিলাম। রাজ্যজুড়ে বিজেপি কর্মীদের বাড়ি ভাঙচুর করা হচ্ছে, দোকান লুটপাট করা হচ্ছে, বাড়ি থেকে জিনিসপত্র লুট হচ্ছে, মেয়েদের শ্লীলতাহানি করা হচ্ছে ঘরছাড়া বিজেপি কর্মীদের বাড়ি ফেরার জন্য টাকা চাওয়া হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে লক্ষাধিক বিজেপি কর্মী ঘরছাড়া হয়ে জীবন বাঁচানোর চেষ্টা চালাচ্ছে। আর সেই ঘরছাড়া বিজেপি কর্মীদের সঙ্গে দেখা করতে আসেন তিনি। বিজেপির বসিরহাট জেলা পার্টি অফিস এর উপরে আশ্রয় নেওয়া বিজেপি কর্মীদের সঙ্গে কথা বলেন এ দিন।

নির্বাচনের ফল ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই বসিরহাট মহকুমা জুড়ে সন্ত্রাসের কবলে বিজেপি কর্মীরা। বসিরহাট মহকুমা ঘরছাড়া বিজেপি কর্মীদের অনেকেই আশ্রয় নেন বিজেপির বসিরহাট জেলা পার্টি অফিসে । বিজেপি কর্মীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, সন্দেশখালি মিনাখাঁ হাড়োয়া এমন সমস্ত এলাকা থেকেই বেছে বেছে বিজেপি কর্মীদের উপরের। পাশাপাশি লুট করা হচ্ছে তাদের বাড়ি ও দোকান। মাছের ভেড়ির আল কেটে ক্ষতিগ্রস্ত করা হচ্ছে মৎস্যজীবীদের। প্রাণভয় বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে আসতে বাধ্য হয়েছেন আক্রান্ত বিজেপি কর্মীরা। এমনই অভিযোগ উঠেছে বসিরহাট মহকুমা জুড়ে।