সুজয় মন্ডল বসিরহাট :- লোকসভা নির্বাচনের নির্ঘণ্ট চালু হওয়ার পর থেকে রাজ্য জুড়ে ধরপাকড় শুরু হয়েছে পুলিশের পক্ষ থেকে। যার ফলে একাধিক জায়গায় মিলছে অস্ত্র কারখানার হদিশ। তেমনি এক অস্ত্র কারখানার হদিশ এর সঙ্গে জড়িয়েছে বসিরহাটের এক বাসিন্দার নাম। যার ফলে সোমবার বসিরহাট ন্যাজাট রোডের দক্ষিণ আকড়াতলা সেতুর কাছে গাড়ি থামিয়ে নাকা চেকিং করে সন্দেশখালি থানার পুলিশ।

ন্যাজাট বসিরহাট রুটের বাস থামিয়ে যাত্রীদের ব্যাগ চেকিং এর পাশাপাশি এই রুটের ছোট বড় সমস্ত গাড়ি দাঁড় করিয়ে সার্চ করতে দেখা যায় পুলিশকে। এই নাকা চেকিংয়ে পুলিশের সঙ্গে ন্যাজাট বিডিও অফিসের কর্মীরা ছিলেন। তবে চেকিংয়ের ক্ষেত্রে একাধিক গাফিলতির চিত্র উঠে আসে সরকারি আধিকারিকদের কাজে। একেতো সীমান্তবর্তী এলাকা তার উপরে সামনেই লোকসভা নির্বাচন। এই মুহূর্তে যাতে বাইরে থেকে নাশকতা ঘটানোর উদ্দেশ্যে কেউ কিছু নিয়ে এলাকায় না ঢুকতে পারে ও এলাকা থেকে কোন জিনিস যাতে বাইরে নিয়ে যেতে না পারে সেজন্যই নাকা চেকিং শুরু করেছে পুলিশ। তবে পুলিশের সামনে দিয়ে চলাচল করছে একাধিক নাম্বারহীন যানবাহন। মহকুমা জুড়ে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে নাম্বারহীন মোটরবাইক। কিন্তু সবকিছু দেখেও তাদের বিরুদ্ধে কোন পদক্ষেপ নিতেই দেখা গেল না পুলিশকে।