নিজস্ব সংবাদদাতা :- আজ বর্ধমান স্টেশনে যাত্রীদের ভিড়ের চাপে পদপিষ্ট ও ধাক্কাধাক্কিতে জখম হলেন যাত্রীরা। এদিন স্টেশনের ৪ ও ৫ নম্বর প্লাটফর্মে একমাত্র সিঁড়ি দিয়ে নামা ও ওঠার সময় যাত্রীদের প্রচণ্ড ভিড় হয়। চার নম্বর প্লাটফর্মে দাঁড়িয়ে ছিল আপ পুরুলিয়া লোকাল। অন্যদিকে পাঁচ নম্বর প্লাটফর্মে ঢোকে ওই সময়ে ডাউন পূর্বা এক্সপ্রেস। ফলে দুটি ট্রেনের যাত্রীদের মধ্যে হুড়োহুড়ি শুরু হয়। ফলে চরম ধাক্কাধাক্কিতে অনেকে নীচে পড়ে যান।পড়ে যাওয়া যাত্রীদের উপর দিয়ে অন্য যাত্রীরা চলে যায়। দুর্ঘটনায় বেশ কয়েকটি শিশুও জখম হয়।আহতদের রেলপুলিশ উদ্ধার করে বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। স্টেশনের চার ও পাঁচ নম্বর প্লাটফর্মে নামা বা ওঠার একটি মাত্র সিঁড়ি। অন্য যে সিঁড়ি আছে তা এখন পুরোপুরি বন্ধ হয়ে আছে। কারণ ওখানে চলমান সিঁড়ি তৈরির কাজ চলছে। যাত্রীরা জানান এই রকম হুড়োহুড়ি বা ধাক্কাধাক্কি প্রায় প্রতিদিনের ঘটনা। তবু রেল প্রশাসন উদাসীন। তাছাড়া ঠিক সময়ে স্টেশনে মাইকিং করা হয় না বলেও অভিযোগ যাত্রীদের। একেবারে ট্রেন প্লাটফর্মের ঢোকার মুহূর্তে মাইকিং করা হয় বলে জানান তাঁরা।
বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে মোট ১১ জন যাত্রীকে। তার মধ্যে দু’টি শিশু আছে। আহতদের মধ্যে একজন মহিলা যাত্রীর অবস্থা গুরুতর।